জামা, প্যান্ট ও জাঙ্গিয়ার ভেতরে পেস্ট করে স্বর্ণ চোরাচালান করছিলেন তিনি

|

ঢাকায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১ কেজি ৩৩৬ গ্রাম স্বর্ণসহ নুর হোসেন নামে এক যাত্রীকে আটক করেছেন কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের কর্মকর্তাগণ। তার দুই স্তরবিশিষ্ট ফেব্রিক্স দিয়ে তৈরি জামা, প্যান্ট ও আন্ডার গার্মেন্টস ভালোভাবে পরীক্ষা করে পেস্টকৃত স্বর্ণের উপস্থিতি নিশ্চিত হয় সংশ্লিষ্ট গোয়েন্দা টিম। অভিনব উপায়ের শার্ট, প্যান্ট ও আন্ডারগার্মেন্টসের দুই স্তরের মধ্যে বিশেষ আঠা দিয়ে লাগিয়ে এসব স্বর্ণ চোরাচালানের চেষ্টা করছিলেন তিনি।

কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক জানান, গোপন সংবাদ পাওয়া যায়, দুবাই থেকে আগত একজন যাত্রী চোরাচালানকৃত স্বর্ণ বহন করছেন। এ খবরের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দাদের একটি দল শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান করে। পরে ওই যাত্রী গ্রিন চ্যানেল অতিক্রমকালে তাকে শনাক্ত করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে স্বর্ণ পরিবহনের কথা অস্বীকার করেন। কিন্তু গোয়েন্দারা দেহ তল্লাশির সময় ওই যাত্রীর গায়ের জামার মধ্যে শক্ত কিছুর অস্তিত্ব টের পান।

জব্দকৃত মোট স্বর্ণের পরিমাণ ১৩৩৬ গ্রাম যার মধ্যে পেস্টসদৃশ (লিকুইড) স্বর্ণ ১০০৩ গ্রাম, স্বর্ণবার ২৩৩ গ্রাম ও স্বর্ণালঙ্কার ১০০ গ্রাম। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বাজার মূল্য আনুমানিক ৯৩ লাখ ৫২ হাজার টাকা।

অভিযুক্ত যাত্রী নুর হোসেনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইন ১৯৭৪ এবং দ্য কাস্টম অ্যাক্ট ১৯৬৯ এর বিধান অনুযায়ী মামলা দায়ের করে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply