ক্লাসের ফাঁকে পানি খেতে বেরিয়েছিল অর্পা, পাওয়া গেল লতার সাথে ফাঁস দেয়া লাশ

|

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ফেনী:

ফেনীর দাগনভূঞায় মিফতাহুল জান্নাত অপ্রা (৫) নামে প্রাক প্রাথমিক শ্রেণির এক শিশুকে অমানবিকভাবে গাছের লতার সাথে ফাঁস দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার (২৫ জুন) দুপুরে উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের দক্ষিণ নেয়াজপুর গ্রামের নেয়াজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছন থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত অপ্রা একই এলাকার বক্সআলী ভূঞা বাড়ির ওসমান গনির মেয়ে ও নেয়াজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থী।

নিহত শিশুর ফুপু তোহরা আক্তার বিউটি জানান, বাড়ির পাশেই নেয়াজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, স্কুলে গিয়ে ক্লাসের ফাঁকে পানি খাওয়ার জন্য বেরিয়ে নিখোঁজ হয় অপ্রা। পরে অনেক খোঁজাখুজির পর স্কুলের পেছনে কবরস্থানের ঝোপের মধ্যে গাছের সঙ্গে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ, র‍্যাব, সিআইডিসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক দল ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সোনাগাজী ও দাগনভূঞা থানার সার্কেল অফিসার মাসকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ময়নাতদন্ত শেষ না পর্যন্ত এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো যাচ্ছে না। তবে প্রাথমিক ধারণা করা যাচ্ছে শিশুটিকে শারিরীক নির্যাতনের পর হত্যা করা হয়েছে।

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনর্চাজ মো. হাসান ইমাম বলেন, ময়না তদন্তের রির্পোট হাতে পেলে ঘটনার মূল কারণ জানা যাবে। ঘটনার ক্লু উদঘাটনে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply