রাসায়নিক সারের বদলে মূত্র দিয়ে চাষ, বাড়ল ফলন!

|

সার হিসেবে মূত্র ব্যবহার করছে এক কৃষক। ছবি: সংগৃহীত।

খরা ও দারিদ্র্যের কারণে রাসায়নিক সার কেনার সামর্থ্য নেই আফ্রিকার দেশ নাইজারের অধিকাংশ চাষিরই। এমন সংকটময়য় পরিস্থিতিতে দেশের বিজ্ঞানীরা সম্মিলিত ভাবে এক অভিনব পদ্ধতি বের করলেন চাষাবাদের জন্য। সারের বদলে ব্যবহার করা হল মানুষের মূত্র! আর তাতেই সাফল্য এলো, ফলন বৃদ্ধি হলো এক লাফে প্রায় ৩০ শতাংশ।

নাইজারের বিজ্ঞানীরা ইংল্যান্ড ও জার্মানির কিছু গবেষকের সঙ্গে যৌথভাবে মানুষের মূত্রকে সার হিসেবে ব্যবহার করার পদ্ধতিটি প্রয়োগ করেছেন পার্ল মিলেট নামক স্থানীয় একটি দানাশস্যের ওপর।

সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানীরা বলছেন, মানুষের মূত্রে থাকে ইউরিয়া, সোডিয়াম, পটাশিয়ামের মতো একাধিক উপাদান যা সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারলে ভাল ফল মিলতে পারে। এই ভাবনা থেকেই ২০১৪ সাল থেকে পরীক্ষামূলকভাবে মূত্রের প্রয়োগ করা শুরু করেন বিজ্ঞানীরা।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, প্রাচীন কিছু সভ্যতার ক্ষেত্রে মূত্রকে সার হিসেবে ব্যবহার করার কথা শোনা গেলেও এমন প্রত্যক্ষ প্রয়োগ বিরল। কিন্তু নাইজারের মতো দেশে এই উদ্ভাবন সত্যিই যুগান্তকারী হতে পারে। মূত্র ব্যবহারে যেমন রাসায়নিক পদার্থের থেকে সৃষ্ট বিষক্রিয়ার আশঙ্কা কমে, তেমনই এর দামও অত্যন্ত কম। তাই দরিদ্র চাষিদের পক্ষে এই পদ্ধতি বেশ কার্যকর।

তবে, সার হিসেবে মূত্র ব্যবহারের ক্ষেত্রে সব ভালো দিকের মধ্যে একটা সমস্যাও রয়েছে: সারটি ব্যবহার করলেই নাকে দুর্গন্ধ আসে।

তবে বিজ্ঞানীরা জানান, চেষ্টা করা হচ্ছে যাতে দুর্গন্ধের বিড়ম্বনাটি দূর করে ফেলা যায়।

সূত্র: সাইনস এলার্ট
এনবি/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply