খোঁজ মিললো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে বেঁচে ফেরা মার্কিন সেনাদের নিয়ে ডুবে যাওয়া যুদ্ধজাহাজের

|

'স্যামুয়েল বি' যুদ্ধ জাহাজের ধ্বংসাবশেষের ছবি। ছবি: সংগৃহীত।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় সমুদ্রে তলিয়ে যাওয়া মার্কিন নৌবাহিনীর একটি ডেসট্রয়ার বা যুদ্ধজাহাজের খোঁজ মিলেছে। ফিলিপাইনে সমুদ্রপৃষ্ঠের প্রায় ৭ হাজার মিটার বা ২৩ হাজার ফুট গভীরে মিলেছে এই জাহাজের ধ্বংসাবশেষ। এর আগে সমুদ্রের এত নিচে কোনো জাহাজের ধ্বংসাবশেষের নাগাল পাওয়া যায়নি। সাগরের সবচেয়ে গভীরে পাওয়া টায়টানিক জাহাজের ধ্বংসাবশেষও উদ্ধার করা হয়েছিল সমুদ্রপৃষ্ঠের ৪ হাজার মিটার নিচ থেকে। খবর এনডিটিভির।

১৯৪৪ সালের ২৫ অক্টোবর ‘স্যামুয়েল বি’ নামের এই জাহাজটি ডুবে যায় বলে জানা গেছে। ওই সময় জাপানি দখলদারিত্ব থেকে ফিলিপাইনকে মুক্ত করতে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছিল যুক্তরাষ্ট্র। সেই সময় ওই অঞ্চলে একটি মার্কিন উপনিবেশও ছিল।

টেক্সাস-ভিত্তিক সামুদ্রিক প্রযুক্তির কোম্পানি ক্যালাডান ওশেনিক জানিয়েছে, চলতি মাসে টানা আটদিন ধরে ওই অঞ্চলে জরিপ চলেছে। জরিপকারী একটি দলের ক্যামেরায় এই যুদ্ধজাহাজের একটি ছবি ধরা পড়ে। এরপরই ওই স্থানে জাহাজটির অস্তিত্ব সম্পর্কে জানা যায়। প্রকাশিত সেই ছবিতে জাহাজের তিনটি টিউব টর্পেডো লঞ্চার এবং একটি গোলা ছোড়ার মুখ দেখতে পাওয়া যায়।

মার্কিন নৌবাহিনীর তথ্য মতে, ‘স্যামুয়েল বি’ জাহাজটি অনেক যুদ্ধাহত সৈনিক নিয়েই ডুবে গিয়েছিল। সেই সময় এতে যুদ্ধে আহত সেনা সদস্যরা ছাড়াও হাঙরের আক্রমণ থেকেও বেঁচে ফেরা অনেক সৈনিক ছিল। প্রায় ৩ দিন ধরে উদ্ধারের জন্য অপেক্ষার পর অবশেষে জীবিত সব সেনা সদস্যদের নিয়েই সাগরের অতলে তলিয়ে যায় স্যামুয়েল বি। এত বছর পর খোঁজ মিলেছে জাহাজটির। ওই বছর ২৫ অক্টোবর মার্কিন নৌবাহিনীর চারটি যুদ্ধজাহাজ ডুবে যায়। এরমধ্যেই একটি ছিল এই ‘স্যামুয়েল বি’।

জাহাজের ধ্বংসাবশেষের খোঁজ পাওয়া ক্যালাডান ওশেনিকের মালিক ভিক্টর ভেসকোভো বলেন, ৬ হাজার ৮৯৫ মিটারে গিয়ে এই জাহাজের খোঁজ মেলে। এখন পর্যন্ত কোনো জাহাজের ধ্বংসাবশেষের খোঁজ পাওয়া এটিই সবচেয়ে গভীরতম স্থান। ছোট্ট এই জাহাজটি জাপানি নৌবাহিনীর সাথে শেষ পর্যন্ত যুদ্ধ চালিয়ে গিয়েছিল।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply