অনেক পথ হেঁটে এসে বৃদ্ধ বললেন, কষ্টের দিন ‘শ্যাষ’

|

উদ্বোধনের দিন পদ্মা সেতু দেখতে সারাদেশ থেকে মানুষ এসেছেন। উদ্বোধনের পর সেতু খুলে দেয়া হয় সাধারণ মানুষের জন্য। উচ্ছ্বসিত মানুষ পায়ে হেঁটে, মোটরসাইকেলে বা বাইসাইকেলে করে এপার-ওপার ঘুরে এসেছেন। উচ্ছ্বসিত মানুষের কাছে যমুনার প্রতিনিধিরা জানতে চেয়েছিলেন, কেমন লাগছে পদ্মা সেতু ভ্রমণ করে। একজন জানালেন, পদ্মা সেতু দেখতে খুলনা থেকে এসেছেন তিনি। সেতু তাদের রাজধানী থেকে বাড়ি ফেরার ভোগান্তি দূর করবে বলে প্রচণ্ড উচ্ছ্বসিত তিনি।

এক প্রবীণ নাগরিকও এসেছিলেন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে শামিল হতে। জানালেন, অর্ধেক সেতু পায়ে হেঁটে ঘুরে এসেছেন তিনি। বললেন, কষ্টের দিন শ্যাষ। শারীরিক পরিশ্রমকে কিছুই মনে করছেন না, কারণ বহুদিনের যে কষ্ট লাঘব করতে যাচ্ছে পদ্মা সেতু, তার তুলনায় এটি কিছুই না।

নারীরাও এসেছেন পদ্মা সেতু দেখতে। মায়েরা এসেছেন শিশুদের নিয়ে। একজন সেতুতে ঘুরতে ঘুরতে জানালেন, আশা করেননি শিশুকে নিয়ে সেতুতে উঠতে পারবেন তিনি, উঠতে পেরে আনন্দিত তিনি। দেখা গেলো আরও কয়েকজন নারীকেও, বিভিন্ন বয়সী নারীদের মধ্যে ছিলেন তরুণীরাও। রয়েছে স্কুলে পড়া কিশোররাও।

পদ্মা সেতু দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে এসেছেন তরুণরা। তরুণদের উচ্ছ্বাস বাঁধভাঙা। যাদের সাথেই কথা হলো যমুনার, সবাই উচ্ছ্বসিত। একজন জানালেন এতবড় সেতুতে এই প্রথম উঠলেন তিনি। ছবি তোলা ছাড়াও বিভিন্নভাবে আনন্দ উদযাপন করছেন তারা। তরুণ একজন জানালেন, আশুলিয়া থেকে এসেছেন তিনি। পকেটের টাকা খরচ করে কিশোরগঞ্জ থেকে সেতু দেখতে এসেছেন আরও একজন। সেতু দেখে প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ দিলেন তিনি।

সাতষট্টি বছরের এক প্রবীণ জানালেন, পদ্মা সেতু দেশের উন্নয়নের চিহ্ন। এটি দেখে তার খুবই ভালো লেগেছে। তিনি অন্তত তিন কিলোমিটার হেঁটে পদ্মা সেতুর ওপরে উঠেছেন। আরেক প্রবীণ জানালেন, ঢাকা-চকবাজার থেকে হেঁটে তিনি পদ্মা সেতু দেখতে এসেছেন। ৮০ বছরের বৃদ্ধ জানালেন, আগে কারবারিরা ওপার থেকে মাল আনতে বেশ ভোগান্তিতে পড়তেন, এখন সেটি আর হবে না। আগে মাল পচে যেতো, এখন আর সে সম্ভাবনা নেই।

সিলেট থেকে আসা আরেকজন বললেন, শুধু পদ্মা সেতু একনজর দেখতেই এতদূর থেকে এসেছেন তিনি। তার উচ্ছ্বাস বাধা মানছে না। কক্সবাজার থেকে আসা একজন ঘুরে এসেছেন সেতুর অর্ধেকটা। জানালেন, পুলিশ বাধা না দিলে পুরোটা ঘুরে আসতেন তিনি।

প্রসঙ্গত, আজ সকালেই উদ্বোধন করা হয় বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মেগাপ্রকল্প পদ্মা সেতু। প্রধানমন্ত্রী সকালে বিশেষ আয়োজনের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন সেতুটি।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply