রাবি ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে নিজ দলের কর্মীকে মারধরের অভিযোগ

|

রাজশাহী ব্যুরো:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়ার বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ করেছেন রুহুল আমিন নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী। রুহুল আমিন পাবলিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের শিক্ষার্থী ও শাখা ছাত্রলীগের কর্মী।

শুক্রবার (২৪ জুন) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের টিভি রুম এই মারধরের ঘটনা ঘটে। রুহুল আমিনের অভিযোগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি গোলাম কিবরিয়া তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি চালানোর জন্য নেয়। এরপর তারা সেই মোটরসাইকেলটি বন্ধক রেখে নেশার টাকা যোগাড় করে। শুক্রবার ভোররাতে মোটরসাইকেল ফেরত নিতে বঙ্গবন্ধু হলে যান রুহুল। সেখানে গিয়ে সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ঘুমন্ত দেখে রুহুল আমিন রুমের বাইরে থেকে আটকে দেন। পরে ঘুম থেকে উঠে অন্য এক শিক্ষার্থীর মাধ্যমে রুমের দরজা খুলে টিভি রুমে আসেন সভাপতি গোলাম কিবরিয়া। পরে তিনি ওই ছাত্রলীগ কর্মীকে বেধড়ক মারধর করেন।

এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, রুহুলের গতিবিধি সন্দেহজনক ছিল। রুমের বাইর থেকে দরজা বন্ধ করে আমার বাইক নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। খবর পেয়ে তাকে হলের টিভির রুমে গিয়ে ধরতে সক্ষম হই। পরে তাকে আমরা হল ছাড়া করি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর নিকট থেকে অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply