সিলেট-সুনামগঞ্জে খাদ্য ও চিকিৎসা সহায়তা দিচ্ছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র

|

সিলেট এবং সুনামগঞ্জে ১৫ টন গো খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি, শুকনো খাদ্য ও তিনটি চিকিৎসা টিম নিয়ে কাজ করছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিকেলে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিণ সুরমা ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ১৫ টন গো খাদ্য বিতরণের জন্য ঢাকা হতে গো খাদ্য পাঠানো হয়েছে। আগামীকাল হতে সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় গো খাদ্য বিতরণ করা হবে।

জানানো হয়, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র গত ১৭ জুন থেকে সিলেট এবং সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় অসহায়দের মাঝে ১০০ টন শুকনো খাদ্য বিতরণের কার্যক্রম করে যাচ্ছে। এরই মধ্যে ২১ টন চিড়া ও ৫ টন গুড় বিতরণ করা হয়েছে। ২ লিটারের পাঁচ হাজার বোতল পানি ও পানি বিশুদ্ধকরণের পর্যাপ্ত ট্যাবলেটও বিতরণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, প্রতিটি পরিবারকে ২ কেজি চিড়া, আড়াইশ গ্রাম গুড়, ২ লিটারের একটা করে পানির বোতল, পানি বিশুদ্ধকরণের ট্যাবলেট, খাবার জি সেলাইন, প্যারাসিটামল, শিশুদের জন্য জি প্যারাসিটামল সিরাপসহ বিভিন্ন ওষুধপত্র বিতরণ করে যাচ্ছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্মীরা। গত পাঁচদিনে প্রায় পাঁচ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য বিতরণ করা হয়। ২০০০ বন্যার্ত মানুষকে চিকিৎসা দেয়া হয়।

জেডআই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply