গ্রিক বিদ্রুপাত্মক নাটকের আদলে পদ্মাসেতু নিয়ে ২৪ জুন গীতিনাট্য পরিবেশন করবে ঢাবি শিক্ষার্থীরা

|

ফাইল ছবি

গ্রিক বিদ্রুপাত্মক নাটকের আদলে আমাদের দেশীয় লোকজ ধারায় পদ্মাসেতু নিয়ে ২৪ জুন গীতিনাট্য পরিবেশন করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সকাল ১০টায়- কারওয়ান বাজার (সিএ ভবনের পাশের রাস্তা), সকাল ১১টায়- যাত্রাবাড়ী (জনপথ মোড়), দুপুর ১২টায়- কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন, বিকেল ৪টায়- কার্জন হল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বিকেল ৫টায়-ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার এবং সন্ধ্যা ৬টায়- টিএসসিতে (রাজু ভাস্কর্য) এ গীতিনাট্য পরিবেশন করা হবে।

অনুষ্ঠানের সার্বিক পরিচালনায় থাকবেন ডাকসুর সাবেক সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।

তানভীর বলেন, পদ্মায় সেতু নির্মাণ ছিল এক কারিগরী মহাচ্যালেঞ্জ। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার যখন সেই চ্যালেঞ্জকে জয় করেই পদ্মার বুকে সেতু করার সিদ্ধান্ত নেয় তখন সেতুর বিশাল অর্থায়ন নিয়ে শুরু হয় যত যল্পনা-কল্পনা৷ দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রে কাল্পনিক ও মিথ্যা অভিযোগ এনে বিশ্বব্যাংক থেকে শুরু করে বাকি বিনিয়োগকারীরা সরে গেলেও হার না মানা বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী চিন্তা-ভাবনা এবং প্রত্যয়ে এই সেতুর কাজ শুরু হয় দেশিয় অর্থায়নেই৷

তিনি আরও বলেন, তারই সাহসীকতার ফলশ্রুতিতে আজ পদ্মার বুকে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছে আমাদের প্রাণের পদ্মা সেতু৷ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইস্পাত কঠিন মনোবল নিয়ে এদেশের সার্বিক উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির চাকাকে অধিকতর সচল রাখতে বিরামহীন কর্মযজ্ঞ সম্পন্ন করে চলেছেন। দেশ ও দেশের মানুষের জন্য তিনি সম্ভাব্য সকল চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে যাচ্ছেন; সুনিপুণ দক্ষতার সাথে একের পর এক মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন। পদ্মা সেতুর বাস্তবায়ন দেশের ইতিহাসে তেমনি এক অবিস্মরণীয় অর্জন, যা আমাদের সামগ্রিক অর্থনীতি-যোগাযোগ ব্যবস্থা-জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে এবং নগরায়নে রাখবে অনন্য ভূমিকা৷

/এনএএস





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply