বাজেটে ব্যাংকিং খাত: রাজস্ব নীতির কারণে ব্যবসা কমার শঙ্কা

|

নতুন উদ্যোগের ফলে স্বল্প আয়ের মানুষের ঋণ সুবিধা পাওয়া কঠিন হবে বলে শঙ্কা প্রকাশ।

৫ লাখ টাকার বেশি ঋণ নিতে চাইলে আয়কর রিটার্ন দিতে হতে গ্রাহককে। ক্রেডিট কার্ড নেয়ার ক্ষেত্রেও রিটার্ন জমা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বাজেটে এসব উদ্যোগের ফলে ছোট ব্যবসায়ী এবং স্বল্প আয়ের মানুষের ঋণ সুবিধা পাওয়া কঠিন হয়ে পড়বে এবং ব্যাংকের ব্যবসাও কমবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ব্যাংকাররা বলছেন, প্রস্তাবিত বাজেটের রাজস্ব নীতিতে যেসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে তার ফলে ব্যাংকের আমানত ও ঋণের প্রবাহ কমে যাবে। ব্যাংকিং খাতের মোট আমানতের বড় অংশ প্রাতিষ্ঠানিক আমানত। এসব আমানতের উৎসে কর ১০ থেকে থেকে বাড়িয়ে ২০ শতাংশ করা হয়েছে। এছাড়া আবগারি শুল্ক বাড়ানো হয়েছে ৫ কোটি টাকা বেশি আমানতের ক্ষেত্রে। এর ফলে অনেকেই টাকা রাখতে নিরুৎসাহিত হবে।

রাজস্ব নীতিতে আরও বলা হয়েছে, নিয়ম না মানলে ব্যাংককে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করতে পারবে রাজস্ব বোর্ড। ক্রেডিট কার্ডের গ্রাহক ১৯ লাখেরও বেশি। এর বড় অংশ নিম্ন ও মধ্যবিত্ত। নতুন কার্ড নিতে রিটার্ন জমা বাধ্যতামূলক করায় এই খাতে নতুন গ্রহক কমবে বলেও আশঙ্কা ব্যাংকারদের।

আরও পড়ুন: সব রেকর্ড ভেঙে টাকার বিপরীতে ডলারের দাম সর্বোচ্চ

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply