প্রথম ভারতীয় হিসেবে আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার জিতলেন গীতাঞ্জলী শ্রী

|

রেত সামাধি উপন্যাসের জন্য প্রথম ভারতীয় হিসেবে আন্তর্জাতিক বুকার পুরষ্কার ২০২২ জিতেছেন গীতাঞ্জলী শ্রী।

ভারতীয় হিসেবে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পেলেন ভারতীয় লেখিকা গীতাঞ্জলি শ্রী। ২০২২ সালে এ পুরস্কারের জন্য বিভিন্ন দেশের ১৩৫ টি বই মনোনয়ন পেয়েছিল। সমস্ত বইকে পেছনে ফেলে এবার আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার জিতে নিয়েছে হিন্দি উপন্যাস ‘রেত সমাধি’। এটিই হিন্দি সাহিত্যে প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক পুরষ্কার।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) লন্ডনে একটি অনুষ্ঠানে গীতাঞ্জলীর হাতে এ পুরস্কার তুলে দেয়া হয়েছে। হিন্দি উপন্যাস ‘রেত সামাধি’র জন্য এ পুরস্কার লাভ করেন তিনি। আর হিন্দিতে লেখা এ বইটির ইংরেজি অনুবাদ করেছেন ডেইজি রকওয়েল, আর অনুবাদটির ইংরেজি নাম দেয়া হয়েছে টম্ব অব স্যান্ড।

গীতাঞ্জলী ও বইটির ইংরেজি অনুবাদক রকওয়েল বইটির জন্য একযোগে ৫০ হাজার পাউন্ড পুরস্কার জিতেছেন। পুরষ্কার নিতে বুকারের মঞ্চে উঠে গীতাঞ্জলী বলেন, আমি কখনই বুকারের স্বপ্ন দেখিনি, আমি কখনই ভাবিনি যে আমি পারব। কী বিশাল স্বীকৃতি, আমি বিস্মিত, আনন্দিত এবং সম্মানিত বোধ করছি। পুরস্কার পাওয়ার মধ্যে এক ধরনের বিষণ্ণ তৃপ্তি আছে। ‘রেত সমাধি’ বা ‘টম্ব অফ স্যান্ড’ হল আমাদের পৃথিবীর জন্য শোভা। এমন একটা স্থায়ী শক্তি, যা আসন্ন ধ্বংসের মুখেও আশাকে ধরে রাখে। বুকার অবশ্যই এটিকে অনেক বেশি লোকের কাছে নিয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, রেত সমাধি মূলত ৮০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার গল্প, যিনি তার স্বামীর মৃত্যুর পর পাকিস্তানে পাড়ি দিয়েছেন। দেশভাগ দেখেছিলেন তিনি, সেই রক্তাক্ত সময়ের ক্ষতগুলিই যেন আবারও ছুঁয়ে দেখতে চান এই বৃদ্ধা। একজন মেয়ের ভূমিকায়, মায়ের ভূমিকায়, এক নারীর ভূমিকায়, কিংবা এক নারীবাদীর ভূমিকায় ভিন্ন ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে সেই সময়ের মূল্যায়ন করতে চাইছেন তিনি, এমনই এক গল্প নিয়ে এগিয়েছে রেত সামাধির গল্প।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply