রুশ হামলায় কোণঠাসা দোনবাস

|

টাইমসের ছবি।

পূর্বাঞ্চলীয় দোনবাসে রীতিমতো গণহত্যা চালাচ্ছে রুশ সেনাবহর। এক ভিডিওবার্তায় এমন জোরালো অভিযোগ তুললেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলদিমির জেলেনস্কি।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) গভীর রাতে দেয়া ওই ভিডিও বার্তায় ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট জানান, চলমান গোলাবর্ষণ আর মিসাইল হামলায় ধুলোর সাথে মিশে গেছে কয়েকটি শহর। বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়ছে গোটা এলাকা। তিনি আরও অভিযোগ করেন, জোরপূর্বক রাশিয়ায় পাঠানো হচ্ছে দোনবাসের বাসিন্দাদের। যারা সেই নির্দেশনা মানতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছেন তারাই রুশ সেনাবহরের হাতে প্রাণ হারাচ্ছেন। এ আচরণকে যুদ্ধাপরাধের শামিল বলে মনে করেন ভোলদেমির জেলেনস্কি।

এমন অবস্থায় শত্রুপক্ষকে মোকাবেলায় মিত্রদের কাছে মাল্টিপল রকেট লঞ্চার পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট। দোনবাসের গভর্নরের তথ্য অনুসারে, একসাথে ৪০টি শহরে চালানো হচ্ছে হামলা। এরই মধ্যে, প্রাণ হারিয়েছেন ৪৩১ বেসামরিক নাগরিক, আহত কমপক্ষে ১২শ।

ভিডিওবার্তায় ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট বলেন, দোনবাসে মিসাইল হামলা-গোলাবর্ষণ থামার কোনো লক্ষণ নেই। বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে গোটা অঞ্চল। মারিওপোলের মতোই তারা ধ্বংস করতে চাইছে দোনবাস। সেখানে রীতিমতো গণহত্যা চালাচ্ছে রুশ সেনাবহর। বাসিন্দাদের প্রথমে সীমান্তের কাছে জড়ো করা হয়। যারা সীমান্ত পেরিয়ে রাশিয়া যেতে অস্বীকৃতি জানান, তাদেরই হত্যা করা হয় বলেও অভিযোগ করেছেন ভলদিমির জেলেনস্কি।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply