রংপুরে শিশু ধর্ষণ মামলায় মসজিদের ইমামের যাবজ্জীবন

|

স্টাফ করেসপনডেন্ট, রংপুর:

রংপুরের তারাগঞ্জে ১০ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের মামলায় আতিকুল ইসলাম নামের এক মসজিদের ইমামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) দুপুরে রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক আলী আহমেদ এ আদেশ দেন।

ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটার-পিপি তাইয়েজুর রহমান লাইজু জানান, তারাগঞ্জের ঘনিরামপুর ঝাকুয়াপাড়ায় ১০ বছরের এক শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করে পার্শ্ববর্তী মেনানগর পূর্ব জুম্মাপাড়া এলাকার আতিকুল ইসলাম নামের এক যুবক। তিনি স্থানীয় মসজিদের ইমাম। ইমামের কাছে প্রাইভেট পড়ার সুযোগে তাকে মসজিদের থাকার রুমে নিয়ে ২০২০ সলের ১১ এপ্রিল সকালে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য হুমকিও দেয়। বাসায় যাবার পর শিশুটির প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ শুরু হলে বিষয়টি জানাজানি হয় এবং এলাকাবাসী ধর্ষক মসজিদের ইমাম আতিকুলকে আটক করে পুলিশে দেয়।

পরে গুরুতর অবস্থায় ভুক্তভোগী শিশুটিকে প্রথমে তারাগঞ্জ হাসপাতালে ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় শিশুটির পিতা মামলা করলে পুলিশ তদন্ত করে অভিযোগপত্র দেয়।

তিনি আরও জানান, এ মামলায় ১০ জন সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করেন। সাক্ষীদের জেরা ও শুনানি শেষে বিজ্ঞ বিচারক আসামি আতিকুল ইসলামকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন। আদেশের সময় আতিকুল কারাগারে উপস্থিত ছিলেন।

এটিএম/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply