কয়েক মিলিয়ন ইয়ান খরচ করে কুকুরের রূপ নিলেন জাপানি নাগরিক (ভিডিও)

|

ছবি: সংগৃহীত।

পাখি, প্রজাপতি কিংবা ময়ূর, প্রত্যেক মানুষের জীবনে কোনো একটা সময় এসব প্রাণীর মতো হওয়ার ইচ্ছে থাকে। অনেকে এসব প্রাণীর ছবি নিজের শরীরের বিভিন্ন অংশে ট্যাটুও করে রাখেন ভালোবেসে। অনেকে আবার বর্তমানের প্রযুক্তি ও চিকিৎসা বিজ্ঞানের অভাবনীয় অগ্রগতির দৌলতে নিজের লিঙ্গ ও শারীরিক গঠনও পরিবর্তন করেন। তবে নিজেকে কুকুরে পরিণত করতে লাখ লাখ টাকা খরচ করার নজির খুবই বিরল। সম্প্রতি জাপানের এক নাগরিকের এমন কাণ্ড ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেটে।

টোকো স্যান নামের এক জাপানি নাগরিকের বেশ কয়েকটি ছবি ও ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে অবশ্য এই ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে না। ছবিগুলোতে ‘কোলি’ প্রজাতির একটি কুকুরের একাধিক ছবি দেখা যাচ্ছে। তবে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের চোখ কপালে ওঠে এটি জেনে যে, এই কুকুরটিই হলেন টোকো স্যান।

এ নিয়ে জাপানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ‘মাইন্যাভি’তে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, টোকো মোট ২ মিলিয়ন ইয়ান বা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৩ লাখ ৮৪ হাজার টাকা খরচ করে একটি বিশেষ পোশাক বা কসটিউম তৈরি করিয়েছেন। তিনি নিজে ভীষণভাবে কুকুরপ্রেমী একজন মানুষ। তাই নিজেকে কুকুরে পরিণত করতে ‘জেপেত’ নামের একটি কোম্পানির কাছ থেকে এই পোশাকটি তৈরি করিয়েছেন। জেপেত মূলত সিনেমার বিভিন্ন ধরনের স্পেশাল ইফেক্ট নিয়ে কাজ করে। তবে টোকোর অনুরোধে ৪০ দিনের মধ্যেই বিশেষভাবে নকশা করা এই পোশাকটি তৈরি করেছে তারা।

এনিয়ে টোকো বলেন, আমি অনেক আগে থেকেই চতুষ্পদী প্রাণীদের ভালোবাসতাম। তার মধ্যে কুকুর আমার সবচেয়ে প্রিয়। তাই এদের সাথে মিশে গিয়ে স্বপ্নকে সত্যি করার লোভ সামলাতে পারলাম না। এই পোশাকের মধ্যে স্বচ্ছন্দে নড়াচড়া করতে পারেন কিনা এমন প্রশ্নে টোকো বলেন, এ ক্ষেত্রে কিছু বাধা আছে, কিন্তু বেশ ভালোভাবেই নড়াচড়া যায়। তবে খুব বেশি লাফালাফি করলে এই কসটিউমের মধ্যে আমাকে আর কুকুরের মতো লাগবে না।

এর আগে কুকুরের মতো পোশাক পরতে দেখা গেছে অনেককেই। তবে টোকোর এই পোশাকই সম্ভবত এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বাস্তবধর্মী পোশাক। এই পোশাকের আড়ালে একজন জলজ্যান্ত মানুষ বসে আছেন, তা বোঝা প্রায় অসম্ভব।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply