ভাঙলো লিটন-মুশফিকের রেকর্ড সৃষ্টিকারী জুটি

|

ছবি: সংগৃহীত

লিটন দাসের বিদায়ে ভাঙলো মুশফিকুর রহিমের সাথে তার ২৭২ রানের ম্যারাথন জুটি। আর জাতীয় দলে ফেরা স্মরণীয় করে রাখতে পারলেন না মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। মুখোমুখি হওয়া ৩য় বলেই সাজঘরে ফিরেছেন তিনি। প্রতিবেদনটি লেখার সময় টাইগারদের সংগ্রহ ছিল ৭ উইকেট হারিয়ে ২৯৮ রান।

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিনে আধঘণ্টা বাদে সারাদিনই ব্যাট করেছেন লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম। দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুর পর অবশ্য খুব বেশি সময় টিকতে পারলেন না লিটন দাস। ক্যারিয়ারের স্বর্ণালি সময় কাটানো লিটন ফেরেন ব্যক্তিগত ১৪১ রান করে। আর এর মাধ্যমেই ভাঙে ৬ষ্ঠ উইকেট জুটিতে ২৭২ রানের এই রেকর্ড পার্টনারশিপ। ৬ষ্ঠ উইকেট জুটিতে এটিই এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ। বাংলাদেশের পক্ষে মুশফিক-লিটন ভেঙেছেন ২০০৭ সালে পি সারা ওভালে এই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই করা আশরাফুল-মুশফিকের ১৯১ রানের জুটির রেকর্ড।

তবে জাতীয় দলে ফেরাকে স্মরণীয় করে রাখতে পারেননি মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। কাসুন রাজিথার ৫ম শিকার হয়ে ফিরেছেন তিনি মাত্র ৩ বলেই। আর এর মাধ্যমে টাইগারদের ইনিংস দেখলো ৪র্থ ‘ডাক’এর ঘটনা। তবে আগের দিনের মতোই অবিচল মুশফিকুর রহিম ব্যাট করছেন ১২৬ রান নিয়ে।

এর আগে, রাজিথা ও আসিথার বোলিং তোপে মাত্র ২৪ রানেই ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। রানের খাতা খোলার আগেই ফিরেছেন মাহমুদুল হাসান জয়, তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। ৮ ও ৯ রান করেছেন যথাক্রমে শান্ত ও মুমিনুল। রাজিথা ৫ ও আসিথা নিয়েছেন ২ উইকেট।

আরও পড়ুন: ৬৩ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন লিটন-মুশফিক

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply