‘গুপ্তহত্যা থেকে বেঁচে গেছেন পুতিন’

|

ছবি: সংগৃহীত

মাস দুয়েক আগে গুপ্তহত্যা থেকে বেঁচে গেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এমনটি জানিয়েছেন ইউক্রেনের ডিফেন্স ইন্টেলিজেন্সের প্রধান মেজর জেনারেল কাইরিলো বুদানভ। খবরটি প্রকাশ করেছে নিউইয়র্ক পোস্ট ও ডেইলি মেইলসহ বেশ কিছু গণমাধ্যম।

ইউক্রেনস্কা প্রাভদাকে কাইরিলো বুদানভ বলেন, আমাদের কাছে থাকা তথ্যানুযায়ী, প্রায় দুই মাস আগে ককেশাস থেকে আসা একটি দল পুতিনকে গুপ্তহত্যার চেষ্টা করেছিল। এটি সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ প্রচেষ্টা হলেও ঘটনাটি যে ঘটেছিল, তাতে কোনো সন্দেহ নেই। ককেশাসের প্রতিনিধি এ ঘটনাটি আমাদের জানিয়েছে। আমি আবারও বলছি, এটি ছিল ব্যর্থ প্রচেষ্টা। ঘটনাটি সম্পর্কে জনসম্মুখে এর আগে জানানো হয়নি, তবে এটি ঘটেছিল।

ককেশাস সাধারণত ককেশিয়া নামেও পরিচিত। আর্মেনিয়া, আজারবাইজান, জর্জিয়া এবং রাশিয়ার দক্ষিনাঞ্চলের কিছু এলাকা কৃষ্ণসাগর ও কাস্পিয়ান সাগরের মধ্যবর্তী এই অঞ্চলে অবস্থিত।

বুদানভ সরাসরি এই গুপ্তহত্যা প্রচেষ্টার সাথে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে সম্পৃক্ত করেননি। ককেশাস অঞ্চলে বেশ কিছু সংঘর্ষের ঘটনার পর সেখানে আছে পুতিনের বেশ কয়েকজন পুরনো শত্রু। ২০০৪ সালে জর্জিয়ায় সেনা অভিযানের নির্দেশ দিয়েছিলেন পুতিন; কিন্তু এখন পর্যন্ত সেই যুদ্ধ যেন শেষ হয়েও হয়নি। আন্তর্জাতিক ইসলামি জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) জর্জিয়া শাখার সাথে এখনও দেশটির বিভিন্ন স্থানে সংঘাত চলছে রাশিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর। এছাড়াও, ২০২০ সালে ককেশাসের নাগারনো-কারাবাখ এলাকার দখল নিয়ে যুদ্ধ বাঁধে প্রতিবেশী দুই দেশ আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে যুদ্ধ বাঁধে। সেই যুদ্ধে ককেশাস অঞ্চলের নিরাপত্তা পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটে।

আরও পড়ুন: তিন মাসে গড়ালো রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ, হামলায় কতটুকু সফল রাশিয়া?

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply