মগবাজার গ্যাস লাইনে ফাটল: ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে ভাগ্যের জোরে রক্ষা পেলো বাসিন্দারা

|

গ্যাসের লাইন ফেটে যাওয়ার দুই ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও ঘটনাস্থলে দেখা মেলেনি তিতাসের কোনো কর্মকর্তার।

ভয়াবহ এক দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে রাজধানীর মগাজাবার ও ইস্কাটনবাসী। রোববার (২২ মে) রাতে সিটি করপোরেশনের উদাসীনতায় ফেটে যায় তিতাস গ্যাসের সংযোগ লাইন। গ্যাস ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে ভয়াবহ বেগে। রাত পৌনে তিনটায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় তিতাস কর্তৃপক্ষ। তবে আশপাশের লোকজন নিরাপদ দূরত্বে সরে যাওয়ায় হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

মগবাজার ইসকাটন রোডে ফুটপাতের কাজ চালানো হচ্ছিলো সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে। রাত সোয়া ১১টায় হঠাৎ করেই বিকট শব্দে গ্যাসের লাইনে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। সময় গড়ানোর সাথে সাথে গ্যাস বের হওয়ার তীব্রতা ক্রমেই বাড়তে থাকে। পরিস্থিতি এতোটাই খারাপ ছিলে যে তিতাসের তিনজন কর্মী মিলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হন। আধুনিক এই যুগে চটের ছালা এবং গাছ দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা চালায় কর্মীরা, তাতে অবস্থার আরও অবনতি হয়। এক পর্যায়ে গ্যাসের লাইন বন্ধ না করেই স্থান ত্যাগ করে তিতাসের কর্মীরা।

প্রায় দুই ঘণ্টা পার হওয়ার পর অতিরিক্ত জনবল ঘটনাস্থলে আসে সঞ্চালন তদারকির কর্মীরা। ভয়াবহ এই পরিস্থিতিতেও ঘটনাস্থলে দেখা মেলেনি তিতাসের উচ্চ পদস্থ কোনো কর্মকর্তার। তিন ঘণ্টা পরে মগবাজার মোড়ে তিতাসের কর্মীরা খুঁজে পায় নির্ধারিত অংশের গ্যাসের চাবি, যা বন্ধ করার পরে গ্যাসের চাপ অনেকটাই কমে আসে। রাত পৌনে তিনটায় উভয় পাশের গ্যাসের সংযোগের চাবি বন্ধ করার মাধ্যমে সংযোগ স্থলের গ্যাসের চাপ বন্ধ হয়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ সিটি কর্পোরেশনের ব্যবহৃত খনন যন্ত্র থেকেই ঘটেছে এই ভয়াবহ এই দুর্ঘটনা।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply