দেশে আনা হচ্ছে আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ

|

আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ দেশে আনা হচ্ছে। দেশে আনার পর তার স্ত্রীর কবরের পাশে তাকে দাফন করা হবে। লন্ডনে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তানসীম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) যুক্তরাজ্যের লন্ডনের বেন্ট হাসপাতালে স্থানীয় সময় ভোর ৬টা ৪০ মিনিটে মারা যান প্রখ্যাত সাংবাদিক ও কবি আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী। তিনি ১৯৩৪ সালের ১২ ডিসেম্বর বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জের উলানিয়ার চৌধুরীবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা হাজী ওয়াহিদ রেজা চৌধুরী ও মা জহুরা খাতুন।

সাংবাদিকতার পাশাপাশি গল্প, উপন্যাস, স্মৃতিকথা, ছোটদের উপন্যাসও লিখেছেন গাফ্‌ফার চৌধুরী। চন্দ্রদ্বীপের উপাখ্যান, সম্রাটের ছবি, ধীরে বহে বুড়িগঙ্গা, বাঙালি না বাংলাদেশীসহ তার প্রকাশিত গ্রন্থসংখ্যা প্রায় ৩০। এছাড়া তিনি কয়েকটি পূর্ণাঙ্গ নাটক লিখেছেন। এর মধ্যে আছে পলাশী থেকে ধানমন্ডি, একজন তাহমিনা ও রক্তাক্ত আগস্ট।

কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ নানা পুরস্কার পেয়েছেন গাফ্‌ফার চৌধুরী। ১৯৬৩ সালে পান ইউনেস্কো পুরস্কার। এছাড়া বাংলা একাডেমি পদক, একুশে পদক, শেরেবাংলা পদক, বঙ্গবন্ধু পদকসহ আরও অনেক পদকে ভূষিত হয়েছেন।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply