ঠাকুরগাঁওয়ে মাটির নিচে মুক্তিযুদ্ধের সময়কালীন পরিত্যক্ত অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

|

উদ্ধারকৃত পুরনো গুলি ও অস্ত্র।

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ে একটি নতুন ভবন নির্মাণ করার সময় মাটি খুঁড়তে গিয়ে টিনের ট্রাঙ্কভর্তি গুলি ও অস্ত্র পাওয়া গেছে। এর মধ্যে আছে থ্রি নট থ্রি রাইফেল ২৪টি, এসএলআর ৩টি ও বিপুল পরিমাণ গুলি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। দীর্ঘদিন ধরে অব্যবহৃত থাকায় এগুলোতে জং ধরে গেছে। স্থানীয়দের ধারণা, অস্ত্রগুলো বাঙালিদের হত্যার জন্য সংরক্ষণ করে রেখেছিল বিহারিরা।

মঙ্গলবার (১৭ মে) দুপুরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা পৌর শহরের আশ্রমপাড়া মহল্লার মোহাম্মদ হানিফের বাড়ি থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। প্রতিবেশীরা জানান, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ও পরবর্তী সময়েও দীর্ঘ প্রায় নয়মাস ধরে এই এলাকায় অনেক অবাঙ্গালি অবস্থান করেছিল। উদ্ধারকৃত অস্ত্রগুলো মুক্তিযোদ্ধাদের নয় বরং বাঙ্গালিদের হত্যার উদ্দ্যেশ্যে বিহারিরাই এসব অস্ত্র মাটির নিচে পুঁতে রাখতে পারে বলে ধারণা তাদের। এই এলাকায় পরিত্যক্ত বাড়িতে অনুসন্ধান করলে আরও অস্ত্র পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও জানান স্থানীয়রা।

বাড়ির মালিক মোহাম্মদ হানিফ জানান, একবছর আগে তিনি চারশতক জমি ক্রয় করেন। নতুন বাড়ি নির্মাণের জন্য কাজ শুরু করেন তিনি। দুপুরে জমিটির দক্ষিণ-পূর্ব কোণে মাটি খুঁড়তে গিয়ে শ্রমিকরা ট্রাঙ্কের ভেতর অস্ত্রের খোঁজ পান। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ অস্ত্রগুলো উদ্ধার করে।

পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, ভবন নির্মাণে মাটি খোঁড়ার সময় পুরনো অস্ত্রের খোঁজ পান শ্রমিকরা। খোঁড়ার সময় অস্ত্রগুলো টিনের ট্রাঙ্কের ভেতর প্লাস্টিকে মোড়ানো ছিল। উদ্ধারকৃত অস্ত্রগুলোতে জং ধরেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অস্ত্রগুলো অনেক পুরনো। কীভাবে এখানে এসব অস্ত্র আসলো এবং আরও অস্ত্র রয়েছে কিনা তা তদন্তের পরে বলা জানানো হবে।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply