অস্থির আটা-ময়দার বাজার, বস্তায় বেড়েছে ৬শ টাকা

|

ভোজ্যতেলের পাশাপাশি চট্টগ্রামে গম এবং আটা-ময়দার বাজারও অস্থির। ভারত থেকে গম রফতানি বন্ধের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে পাইকারি, খুচরা সব জায়গাতেই দাম ঊর্ধ্বমুখী। চাহিদার তুলনায় বেশি আমদানি এবং পর্যাপ্ত মজুদের পরও রাতারাতি মূল্যবৃদ্ধিকে অযৌক্তিক বলছেন চেম্বার নেতারা।

মাস দুই তিনেক আগে থেকেই দেশের বাজারে বাড়ছিল আটা এবং ময়দার দাম। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর বাজার আরও চড়া। এরই মধ্যে বিকল্প দেশ ভারত থেকে গম রফতানি বন্ধের খবরে গত ৩ দিন ধরে দাম গিয়ে ঠেকেছে চূড়ায়। ৫০ কেজি ওজনের প্রতি বস্তা খোলা ময়দার দাম ২ হাজার ৩শ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৭শ টাকায়, আটার দাম বেড়েছে মণ প্রতি ২শ থেকে আড়াইশ টাকা।

প্যাকেটজাত আটা ময়দা বিক্রি করে দেশের ৭টি কোম্পানি। সংকটের সুযোগ নিতে তারা সরবরাহ কমিয়ে দিয়েছে বলে দাবি খুচরা বিক্রেতাদের। দামও বেড়েছে কেজিপ্রতি ৫ থেকে ৭ টাকা পর্যন্ত। আটা ময়দার দাম বৃদ্ধিতে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন হোটেল রেস্তোরাঁর ব্যবসায়ীরা। কারণ, তাদের বেশিরভাগ খাবার তৈরিতে প্রয়োজন এ দুটি পণ্যের।

রাজস্ব বোর্ডের তথ্য মতে, গেলো মার্চ থেকে চলতি মে মাস পর্যন্ত দেশে গম আমদানির পরিমাণ প্রায় ৭ লাখ টন। যা দিয়েই ঘাটতি মিটবে আগামী ৪ মাস, তারপরও দাম বৃদ্ধিকে অযৌক্তিক বলছেন চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাহবুবুল আলম।

আর আমদানিকারকরা বলছেন, বেসরকারি পর্যায়ে আরও ৫ লাখ টনের এলসি খোলা রয়েছে। এর পরেও পাইকারি বাজারে গমের দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি দেড় থেকে ২ টাকা পর্যন্ত।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply