শিয়ালকোট বিমানবন্দর থেকে ইমরান খানের দুটি মুঠোফোন চুরি

|

ইমরান খান। ছবি: সংগৃহীত

শিয়ালকোট বিমানবন্দর থেকে দুটি মুঠোফোন চুরি হয়ে গেছে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিরোধী দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খানের ব্যবহার করা দুটি মুঠোফোন। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

সম্প্রতি ইমরান খান অভিযোগ করেছিলেন, তাকে হত্যা করার চেষ্টা চলছে। হত্যাচেষ্টার প্রমাণসহ একটি ভিডিও তিনি তার কাছে নিরাপদে রেখে দিয়েছেন- এমন অভিযোগ তোলার পর ইমরান খানের মুঠোফোন চুরির তথ্য জানা গেল।

ইমরান খানের মুখপাত্র শাহবাজ গিল সোমবার এক টুইট বার্তায় জানান, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান শনিবার পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় পাঞ্জাব প্রদেশের শিয়ালকোট শহরে পিটিআই আয়োজিত এক বিশাল জনসমাবেশে ভাষণ দেন। ওই কর্মসূচি শেষ করে ফেরার সময় শিয়ালকোট বিমানবন্দর থেকে তার দুটি মুঠোফোন চুরি হয়ে যায়।

শিয়ালকোটের ওই সমাবেশে দেয়া বক্তব্যে ইমরান খান দাবি করেন, তাকে হত্যা করার চেষ্টা চলছে। এ পরিকল্পনা দেশের ভেতরে ও বাইরে বসে করা হচ্ছে। হত্যাচেষ্টার প্রমাণসহ একটি ভিডিও তিনি তার কাছে রেখে দিয়েছেন। নিরাপদে সেটি সংরক্ষণে রেখেছেন। প্রয়োজনে ভিডিওটি প্রকাশ করবেন।

ভিডিও রেকর্ড করে রাখার প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, যদি আমার কিছু ঘটে যায়, তাই আমি দেশে ও দেশের বাইরে কারা এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত, তা যেন দেশবাসী জানতে পারেন।

এ বিষয়ে ইমরান খান আরও বলেন, তারা (ষড়যন্ত্রকারীরা) ইমরান খানকে পথের বাধা মনে করে এবং তাই আমাকে সরিয়ে দিতে চায়। এ জন্য আমি ভিডিওটি ধারণ করেছি। কারণ, আমার মনে হয় এটা রাজনীতি নয়, এটা জিহাদ। এই ভিডিও সব দেশদ্রোহীর মুখোশ খুলে দেবে এবং তাকে হত্যার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে কার কী ভূমিকা, তা উন্মোচিত হয়ে যাবে।

এদিকে মুঠোফোন চুরির বিষয়ে শাহবাজ গিল অভিযোগ করে বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরও ইমরান খানকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেয়া হয়নি। এ সুযোগে তার দুটি মুঠোফোন চুরি হয়ে গেছে। তবে তিনি (ইমরান খান) যে ভিডিওর কথা বলেছেন তা ওই মুঠোফোনে পাওয়া যাবে না।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply