ভারতীয় অভিনেত্রী পল্লবীর মৃত্যু ঘিরে রহস্য

|

ছবি: সংগৃহীত।

ভারতীয় অভিনেত্রী পল্লবীর মৃত্যু নিয়ে চাঞ্চল্যকর একাধিক তথ্য সামনে এসেছে। যদিও এরইমধ্যে আত্মহত্যার দাবি উড়িয়ে দিয়ে তার লিভ ইন প্রেমিক সাগ্নিক চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন অভিনেত্রীর বাবা-মা। রহস্যের জট এরই মধ্যে ঘনীভূত হয়ে উঠছে।

রোববার (১৫ মে) কোলকাতার গড়ফায় নিজের ফ্ল্যাট থেকে পল্লবীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরের দিন সোমবার বিকেলেই গড়ফা থানায় অভিযোগ জানান অভিনেত্রীর বাবা নীলু দে। তার সাথে ছিলেন অভিনেত্রীর মা সঙ্গীতা দে এবং তাদের পরিবারের আইনজীবীও। পুলিশের কাছে সাগ্নিকসহ একাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ জানিয়েছেন নীলু।

পল্লবীর বাবার অভিযোগ, পল্লবীর থেকে নিয়মিত অর্থ নিতেন সাগ্নিক। যা বিভিন্ন সময়ে ব্যাংক লেনদেনের মাধ্যমে তাকে দিয়েছেন পল্লবী। সেই সব লেনদেনের তথ্যও রয়েছে পল্লবীর পরিবারের হাতে। পল্লবীর সাথে লিভ ইন সম্পর্ক থাকার পরও অন্য এক তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক বজায় রেখেছিলেন সাগ্নিক। যা সম্প্রতি জানতে পেরে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী, এরপর থেকেই শুরু হয় অশান্তি।

পল্লবীর বাবার অভিযোগ, প্রয়াত এই অভিনেত্রীকে অনেকবার মারধর করেছেন তার প্রেমিক। পল্লবীর শরীরে সেসব দাগ দেখেছেন তার সহকর্মীরাও। সাগ্নিকের সাথে বেশ কিছুদিন ধরে সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছিল পল্লবীর, সেকথা জানান নিজের সহকর্মীদের। তাই এটি আদৌ আত্মহত্যা কিনা তা নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন।

উল্লেখ্য, আমি সিরাজের বেগম’ ধারাবাহিকে সিরাজের স্ত্রী লুৎফা-র চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন পল্লবী। এই চরিত্রের জন্য তিনি জনপ্রিয়ও হয়ে ওঠেন। তার আগে ‘রেশম ঝাঁপি’ ধারাবাহিকেও তাকে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা গিয়েছিল। ‘কুঞ্জছায়া’ নামে একটি ধারাবাহিকেও তিনি অভিনয় করেছিলেন। বর্তমানে তিনি ‘মন মানে না’ ধারাবাহিকে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করছিলেন।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply