রুশ বাহিনীকে ঠেকাতে ভাসিয়ে দেয়া হয়েছে ইউক্রেনের ছোট্ট একটি গ্রাম

|

পানিতে ভাসছে দেমিদিভ। ছবি: সংগৃহীত।

কৃত্রিম বন্যা সৃষ্টি করে রুশ আগ্রাসন থেকে বাঁচানো গেছে ইউক্রেনের উত্তরাঞ্চলের একটি ছোট্ট গ্রামকে। গ্রামটির নাম দেমিদিভ। কৃত্রিম বন্যার কারণে গ্রামবাসীর ভোগান্তি কিছুটা বাড়লেও রুশ হামলার হাত থেকে এখনও সুরক্ষিত গ্রামের বাসিন্দারা। খবর দ্য নিউইয়র্ক টাইমসের।

গত এপ্রিল মাসে এই গ্রামটির দিকেই যখন বন্দুক তাক করে এগিয়ে আসছিল রুশ সেনাবহর, তখনই গ্রামের ইরপিন নদীতে দেয়া বাঁধের জলকপাট খুলে দেয় ইউক্রেনীয় বাহিনী। ফলে ডুবে গেছে মাঠ, ফসলি জমি। এমনকি পানি উঠে গেছে মানুষের বসতঘরেও। এখনও রাবারের নৌকায় চড়ে চলাচল করতে হয় গ্রামটিতে। আবাদী জমির এক-তৃতীয়াংশ আছে পানির তলায়। তবে এতে খুব বেশি আফসোস নেই গ্রামবাসীর। তাদের মতে, এর মাধ্যমে তারা গ্রামটিকে বাঁচাতে পেরেছে। কিছু পেতে গেলে কিছু হারাতে তো হবেই।

রাশিয়ার সেনাবহরের গতি কমিয়ে দিতে এখন পর্যন্ত ৩০০টি ব্রিজ উড়িয়ে দিয়েছে ইউক্রেনীয় বাহিনী, বোম দিয়ে গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে একাধিক বিমানবন্দরের রানওয়েও। চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের ভূখণ্ডে হামলা চালায় রাশিয়া। এতে এখন পর্যন্ত বাস্তুচ্যুত হয়েছে এক কোটি ২০ লাখের বেশি মানুষ। ৬১ লাখ আশ্রয় নিয়েছে প্রতিবেশী দেশগুলোয়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply