ভিডিওকলে ‘সর্বস্ব হারিয়ে’ বিয়ের দাবিতে প্রবাসী নারীর অনশন

|

বিয়ের দাবিতে এখন হাসানের বাড়িতে অবস্থান করছেন সোনিয়া।

বরগুনা প্রতিনিধি:

বরগুনার পাথরঘাটায় কালমেঘা ইউনিয়নে কুয়েত প্রবাসীর যুবক হাসানের (৩০) বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করেছেন পিরোজপুর জেলার জর্ডান প্রবাসী সোনিয়া (৩৪) নামের এক নারী। তার অভিযোগ, বিয়ের আশ্বাসে ভিডিও কলের মাধ্যমে তার সর্বস্ব ভোগ করেছেন হাসান।

শুক্রবার (১৩ মে) বেলা ১২ থেকে হাসানের বাড়িতে অবস্থান নেন সোনিয়া। জানা গেছে, হাসান দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে কুয়েতে অবস্থান করছেন। আর বিয়ের দাবিতে অনশনরত প্রবাসী সোনিয়া গত বছর জর্ডান থেকে দেশে ফিরেছেন।

সোনিয়া জানান, জর্ডানে অবস্থান করার সময় একটি প্রবাসী গ্রুপের মাধ্যমে তিন বছর আগে কুয়েত প্রবাসী হাসানের সাথে তার পরিচয় হয়। তিনি কুয়েতে চাকরি করা অবস্থায়ই মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় তাদের।

সোনিয়ার অভিযোগ, হাসান বিয়ের আশ্বাসে ভিডিও কলের মাধ্যমে তার সর্বস্ব ভোগ করেছে। তাদের সামনাসামনি দেখা হয়নি তবে অনাগত সন্তানদের কথা চিন্তা করে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কথা বলে এবং জমি ক্রয়ের কথা বলে ৪ লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা নিয়েছে। 

সোনিয়া আরও জানান, ঈদুল ফিতরের দুই দিন পর থেকে হাসানের মোবাইল বন্ধ করে আমার নাম্বার ব্লাকলিস্টে রেখে দেয়। অনেক চেষ্টা করেও কোন যোগাযোগ করতে না পেরে বাধ্য হয়ে পরিবারের কাউকে কিছু না জানিয়ে পাথরঘাটায় হাসানের বাড়িতে এসেছি। বিয়া না করা পর্যন্ত আমি এই বাড়ি থেকে কোথাও যাবো না।

অভিযোগের ভিত্তিতে হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে অভিযোগ অস্বীকার করে হাসান বলেন, সোনিয়ার সাখে আমার ১৫ দিনের সম্পর্ক, আমি বিশ্বাস করে শুধুমাত্র কথা বলেছি। এই সুযোগে আমার সাথে কথা বলার স্ক্রিনশট নিয়ে ব্লাকমেইল করতে শুরু করে সোনিয়া। আমি তাকে ঈদে পাঁচ হাজার টাকাও দিয়েছি, এছাড়া আর কিছুই না। আমি তাকে বিয়ের কোনো প্রলোভন দেখাইনি বরং তার সে একজন তালাকপ্রাপ্ত মেয়ে। আমাকে হয়রানি করতে আমার বাড়িতে উঠে বাবা-মাকে হুমকি দিচ্ছে।

হাসানের মা ফাতিমা বেগম জানান, সোনিয়াকে তার পরিবারের লোকজনকে নিয়ে আসতে বলেছি। কিন্তু কিছুতেই সে তার লোকজন নিয়ে আসছে না। 

এ বিষয়ে পাথরঘাটা থানার ওসি আবুল বাশার জানান, অনশনের ঘটনা জানতে পেরে আমরা সোনিয়া নামের ওই নারীকে আইনি সহায়তা দিতে চেয়েছি। কিন্তু তিনি আইনগত কোনো সহায়তা না নিয়ে অবৈধভাবে অন্যের বাড়িতে প্রবেশ করে জনদুর্ভোগ তৈরি করেছেন। তাকে আইনি সহায়তা নিতে থানা পুলিশের পক্ষ থেকে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply