বেঁচে থাক যৌথ পরিবার, দৃঢ় হোক পারিবারিক শিক্ষা

|

ছবি: সংগৃহীত।

সময় পাল্টেছে, পাল্টে গেছে পরিবারের ধরণও। আর্থ-সামাজিকতায় যৌথ পরিবার ভেঙে হচ্ছে একক পরিবার। শিশুর বেড়ে উঠায় জীবনবোধ গড়ে দেয় পরিবার। তাই পরিবারের শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত বলে মনে করেন সবাই। বিশ্ব পরিবার দিবসে তাই দেশ গড়তে পারিবারিক শিক্ষার দিকেই জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

পৃথিবীতে ছোট্ট আফরানের ভ্রমণ শুরু হয়েছে কেবল ২ বছর। বাবা মায়ের আদর ভালবাসায় একক পরিবারে বেড়ে উঠা, তার জগতে যৌথ পরিবারের ধারণাই নেই। আফরানের বাবার কর্মক্ষেত্রের সূত্রে ইটকাঠের শহরে পাড়ি জমিয়ে হারিয়েছেন শৈশবের স্মৃতি। আফরানের মা সংসার সামলে একক পরিবারে বসবাস করলেও সন্তানকে মানুষ করতে পরিবারের শিক্ষা জরুরি বলে মনে করেন।

সময়ের বির্বতনে একক পরিবারের সংখ্যা বাড়লেও রাজধানীতে এখনো যৌথপরিবার বেঁচে আছে আপন মহিমায়। ‘ভাইয়ের মায়ের এতো স্নেহ কোথায় গেলে পাবে কেহ’ এ গানের লাইন খুঁজে পাওয়া যাবে এই যৌথ পরিবারের হাসি কান্নায়। পরিবার যেমন জীবনবোধের শিক্ষা দেবে, তেমন ভাগ করে নেবে ছোটদের সুখ-দুঃখ। নতুন প্রজন্ম ব্যক্তি স্বাধীনতা কিংবা নিজস্বতায় বিশ্বাসী হলেও যৌথ পরিবাররের ভালবাসার শক্তি ঠিক ঠিক বোধগম্য হয়।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply