‘অন্তর্দ্বন্দ্বের জেরে সরে যেতে হলো বিপ্লব দেবকে!’

|

ছবি: সংগৃহীত

মেয়াদপূর্তির ১ বছর আগেই আচমকা পদত্যাগ করেছেন ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। রাজ্যপাল এসএন আরিয়ার কাছে দেয়া পদত্যাগপত্রে বিপ্লব লিখেছেন, তাকে যেন শনিবারই (১৪ মে) মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এ ঘটনায় শুরু হয়েছে নানা জল্পনা-কল্পনা, কেন হঠাৎ ইস্তফা দিলেন বিপ্লব দেব। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষের ধারণা, অন্তর্দ্বন্দ্বের জেরেই পদত্যাগে বাধ্য হয়েছেন বিপ্লব দেব।

স্বেচ্ছায় নয়, বরং বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের আদেশেই পদত্যাগ করেছেন বিপ্লব দেব, এমন একটি ধারণার কথা পশ্চিমবঙ্গের গণমাধ্যমে দেখা গেলেও এখনও স্পষ্ট হয়নি প্রকৃত কারণ। তবে আনন্দবাজার পত্রিকায় প্রকাশিত এক খবরে বলা হয়েছে, এ পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের শাসক দলকে কটাক্ষ করতে মোটেও দেরি করেনি তৃণমূল কংগ্রেস। দলটির রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা ফেরাতে মরিয়া বিজেপি এভাবে মুখরক্ষা করার ব্যর্থ চেষ্টা করছে। কিন্তু তাতেও কোনো লাভ হবে না। এটি বিজেপির চূড়ান্ত দলবাজির পরিণতি। সবই বিজেপির ক্ষমতার দখলের খেলা। ত্রিপুরার মানুষের সাথে এর কোনো সম্পর্ক নেই। যারা একজন মুখ্যমন্ত্রীকে একটি পূর্ণ মেয়াদ শেষ করাতে পারে না, তারা কোন মুখে মানুষের কাছে ভোট চাইতে যাবে?

কুণাল ঘোষ আরও বলেন, নেতারা সবাই ব্যস্ত অন্তর্কোন্দলে। বিজেপির ভেতরে ভেতরে নেতাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব এমন জায়গায় গিয়ে পৌঁছেছে যে, তা সামলানোর উপায় খুঁজে পাচ্ছে দলটির হাই কমান্ড।

আরও পড়ুন: হঠাৎ কেন ইস্তফা দিলেন বিপ্লব দেব?

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply