ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের হঠাৎ পদত্যাগ

|

বিপ্লব দেব। ছবি: এএনআই।

মেয়াদপূর্তির ১ বছর আগেই আচমকা পদত্যাগ করেছেন ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। রাজ্যপাল এসএন আরিয়ার কাছে দেওয়া পদত্যাগপত্রে বিপ্লব লিখেছেন, তাকে যেন শনিবারই মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

এনডিটিভি জানিয়েছে, বিপ্লব দেব এক লাইনের পদত্যাগপত্র লিখে পাঠিয়েছেন রাজ্যপালকে। এভাবে তার ‍মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দেয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। ত্রিপুরার রাজনীতিতেও সৃষ্টি হয়েছে নানা জল্পনা-কল্পনা।

অবশ্য বিপ্লব দেব জানিয়েছেন, বিজেপির শীর্ষ মহলের নেতৃত্বেই বিধানসভা ভোটের ১০ মাস আগেই মুখ্যমন্ত্রিত্ব ছেড়েছেন। এবার সংগঠনের কাজ করবেন তিনি।

গণমাধ্যমে তিনি জানান, আমি বিজেপির অনুগত কর্মী। আমাকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সেই পদে থেকে ত্রিপুরার মানুষকে সেবা দেয়ার চেষ্টা করেছি। এখন পার্টি চাইছে যে সংগঠনের কাজ করি। সংগঠন থাকলে তবেই সরকার থাকবে। দীর্ঘ সময় আমার মতো কর্মকর্তারা কাজ করলে সরকার দীর্ঘ সময় থাকবে। প্রত্যেকের কাজের একটি নির্ধারিত সময় থাকে।

এর আগে ২০১৮ সালের ৯ মার্চ ভারতের ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি বিপ্লব দেব। বিপ্লব রাজ্য বিজেপির দায়িত্ব পান ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে। তার পৈত্রিক বাড়ি চাঁদপুরের কচুয়ায়। উপজেলার মেঘদাইর গ্রামের হিরুধন দেব ও মিনা রানী দেবের একমাত্র ছেলে বিপ্লব।

১৯৭১ সালে তার মা-বাবা ত্রিপুরা চলে যান। তারা সেখানেই স্থায়ী বাসিন্দা হন। বিপ্লবের অনেক আত্মীয়স্বজন কচুয়ায় বসবাস করছেন। তার চাচা প্রাণধন দেব কচুয়া উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply