আজকের পুঁজি বাজারের খবর

|

প্রতীকী ছবি। ছবি: সংগৃহীত।

গত সপ্তাহে নিম্নমুখী অবস্থানে ছিল পুঁজিবাজার। কমেছে সূচক ও বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। তবে লেনদেন বেড়েছে। নিম্নমুখী অবস্থানে ছিল চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক। কমেছে লেনদেনসহ বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক বা ডিএসই’র এক্সচেঞ্জের সাধারণ মূল্যসূচক ৯০ পয়েন্টর মতো কমে দাঁড়িয়েছে, ৬ হাজার ৫৬৫ পয়েন্ট। পাশাপাশি অন্য দু’টি সূচকও কমেছে। ডিএসই’র শরীয়াহ সূচক ১৫ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৫৩ পয়েন্টের মতো কমেছে। গত সপ্তাহে হাতবদল হয় ৫ হাজার ৩৯৭ কোটি টাকা। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৪৬৮ কোটি টাকা। ।

দাম বেড়েছে ১২৩টির আর কমেছে ২২৭ টির। এছাড়া অপরিবর্তিত ছিল ৩৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দর। লেনদেন হয়নি ৮ টি প্রতিষ্ঠানের। গত সপ্তাহে লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে ছিল জেএমআই হসপিটাল। হাতবদল হয়েছে মোট ২৩০ কোটি ২০ লাখ টাকার শেয়ার। ১৮৩ কোটি ১৫ লাখ টাকার বেশি শেয়ার হাতবদল করে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইমপোর্ট কোম্পানি। এসিআই ফরমুলেশন ছিল তৃতীয় স্থানে।

প্রায় ৫২ ভাগ বেড়ে দরবৃদ্ধির তালিকায় গত সপ্তাহে শীর্ষে ছিল শাইনপুকুর সিরামিকস। এরপর আছে এসিআই ফরমুলেশন। দর বেড়েছে প্রায় ৩২ শতাংশের মতো। বঙ্গস আছে তৃতীয় স্থানে ।

অন্যদিকে প্রায় ১৭ ভাগের মতো কমে দরপতনের তালিকায় শীর্ষে ছিল জেমিনি সি ফুড। এর পরের অবস্থানে যথাক্রমে আছে সিটি ব্যাংক এবং ওয়ান ব্যাংক।

এদিকে দেশের আরেক স্টক এক্সচেঞ্জ সিএসইতে মূল সূচক সিএএসপিআই এক দশমিক দুই তিন শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ২৪৮ পয়েন্টে। পাশাপাশি কমেছে সিএসসিএক্স এবং সিএসই থার্টি সূচক। সপ্তাহজুড়ে মোট লেনদেন হয়েছে ১৬৬ কোটি ৯৭ লাখ টাকার শেয়ার। লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৮টির, কমেছে ১৮৩টির। আর অপরিবর্তিত ছিল ২২টি কোম্পানির শেয়ারের দর।

সিএসইতে গত সপ্তাহে লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে ছিল জেএমআই হসপিটাল। প্রতিষ্ঠানটির মোট ১৬ কোটি ৮৭ লাখ টাকার শেয়ার হাতবদল হয়েছে। ১৩ কোটি টাকার বেশি লেনদেন নিয়ে পরের অবস্থানে শাইনপুকুর সিরামিকস। আর তৃতীয় অবস্থানে ছিল এসিআই ফরমুলেশন।

দরবৃদ্ধির তালিকায় শীর্ষে ছিল স্টার অ্যাডেসিভস। দর বেড়েছে প্রায় ৬০ শতাংশের মতো। এরপর আছে যথাক্রমে শাইনপুকুর সিরামিকস এবং এসিআই ফরমুলেশন। অন্যদিকে ১৭ ভাগ কমে দরপতনের তালিকায় শীর্ষে ছিল সিটি ব্যাংক। এর পরের অবস্থানে যথাক্রমে প্রভাতি ইন্সুরেন্স কোম্পানি এবং মাইডাস ফাইন্যান্সিং।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply