শ্যাম্পুর আগে নাকি পরে, কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন কখন?

|

প্রতীকী ছবি। ছবি: সংগৃহীত।

চুলের যত্নের জন্য কন্ডিশনারের ব্যবহার করেন কমবেশি সবাই। কন্ডিশনার ব্যবহার না করলে চুলে সহজেই জট পড়ে যায়, চুলের ডগা নষ্ট হয়, চুল সম্পূর্ণ রুক্ষ দেখায়। সাধারণত শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনার ব্যবহারের নিয়ম মেনে চলেন সবাই। তবে ‘রিভার্স ওয়াশিং’ নিয়ম মেনে চললে ফল হতে পারে আরও ভালো।

মূলত, চুলে আগে কন্ডিশনার তারপর শ্যাম্পু ব্যবহারের পদ্ধতিকে বলা হয় ‘রিভার্স ওয়াশিং’। আর এই পদ্ধতিতে চুল পরিষ্কার করলে তিনদিন পর্যন্ত চুল ঘন দেখায়। যাদের চুল পাতলা ও তৈলাক্ত, তাদের শ্যাম্পুর পরে কন্ডিশনার ব্যবহার করে খুব বেশি লাভ হয় না। কারণ কন্ডিশনার ব্যবহারের ফলে চুল চেপে বসে যায়। কিন্তু ‘রিভার্স ওয়াশিং’ করে চুলের জেল্লা ফেরানো যায়, সেই সাথে ঢেউ খেলানো ভাবও আসে।

প্রত্যেকের চুলের ধরন আলাদা হয়। বিশেষজ্ঞের মতে, যাদের চুল খুব ঘন ও শুষ্ক, তাদের শ্যাম্পুর পরেই কন্ডিশনার ব্যবহার করা ভালো। কোঁকড়া চুলের ক্ষেত্রে শ্যাম্পুর আগে একবার ও পরে একবার কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হয়। এতে চুল নরম ও উজ্জ্বল থাকবে।

তবে শ্যাম্পুর আগে কন্ডিশনার ব্যবহার করার সময় কিছু জরুরি বিষয় মাথায় রাখতে হয়।

১) শুকনো চুলে কখনই কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন না। চুল হালকা ভিজিয়ে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

২) চুলে কন্ডিশনার লাগিয়ে তিন থেকে পাঁচ মিনিটের বেশি রাখবেন না। এর পরে শ্যাম্পু দিয়েই ওই কন্ডিশনার ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের অতিরিক্ত তেল দূর হবে।

৩) মাথার ত্বকে যাতে কন্ডিশনার না লাগে সে বিষয়ে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply