মালয়েশিয়ায় জোরপূর্বক শ্রম সমস্যা সমাধানে কমিটি গঠন

|

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া:

মালয়েশিয়ায় জোরপূর্বক শ্রম সমস্যা সমাধানে কমিটি গঠন করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র দেশটির শুল্ক ও সীমান্ত সুরক্ষা বিভাগের মাধ্যমে (ইউএস সিবিপি) একটি ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করেছে। এর মধ্য দিয়ে জোরপূর্বক শ্রমের সমস্যা মোকাবেলায় মালয়েশিয়া সরকারের সাথে কাজ করতে সম্মত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

শুক্রবার (১৩ মে) এক বিবৃতিতে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী দাতুক সেরি এম সারাভানান বলেছেন, কমিটি তথ্য আদান-প্রদানের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করবে এবং নীতিমালা প্রণয়ন করবে। যতে জোরপূর্বক শ্রম রোধে দেশের উদ্যোগকে সমর্থন করতে পারে সে বিষয়ে প্রতি তিন মাস অন্তর বৈঠক করবে।

ওয়াশিংটনে সফররত মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী এম সারাভানান বলেছেন, ইউএস সিবিপি চলতি মাসের শেষের দিকে মালয়েশিয়ায় সফর করবে এবং দেশের শিল্প মালিকদের সাথে একটি কর্মশালা করবে। সেখানে জোরপূর্বক শ্রমের কারণগুলোর সাথে সম্পর্কিত বিষয়গুলির উপর আলোকপাত করবে।

সারাভানান জানান, তিনি ইউএস সিবিপি এক্সিকিউটিভ অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার অ্যানমারি হাইস্মিথ এবং ইউনাইটেড স্টেটস ডিপার্টমেন্ট অফ লেবার (ইউএস ডিওএল) আন্তর্জাতিক বিষয়ক ডেপুটি আন্ডার সেক্রেটারি থিয়া লির সাথেও বৈঠক করেছেন। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) তালিকাভুক্ত সমস্ত বাধ্যতামূলক শ্রম সূচক যেমন পরিচয়পত্র সংরক্ষণ, অত্যধিক ওভারটাইম এবং মজুরি আটকে রাখা, এসব বিষয়ে মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগগুলি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

বিভাগটি পরামর্শ দিয়েছে, মালয়েশিয়া শ্রমিকদের ট্রেড ইউনিয়নের গুরুত্ব সম্পর্কে এক্সপোজার প্রদান করে, এটি ট্রেড ইউনিয়ন আইন ১৯৫৯ এর সংশোধনীর সাথে সঙ্গতিপূর্ণ যা জুলাই মাসে সংসদে পেশ করা হবে।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply