বিদেশে পাচার হওয়া টাকা দেশে ফিরে আসবে: অর্থমন্ত্রী

|

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কারণে যেসব টাকা পাচার হয়েছে তা আবারও দেশে ফিরে আসবে। কারণ, বিদেশে টাকা রেখে লাভের চেয়ে লোকসান বেশি।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) বিকেলে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে রেমিটেন্স অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, এখন রেমিটেন্স প্রবাহ বাড়ানো খুব বেশি দরকার। এজন্য তিনি প্রবাসীদের সহায়তা চান। বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠানোর অনুরোধ জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, অবৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠালে তা কোনো না কোনো সময় প্রশ্নবিদ্ধ হবে। তাই ব্যাংকিং চ্যানেলে টাকা পাঠানো নিরাপদ।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত হবে বাংলাদেশ। ২০৩১ সালে উচ্চ মাধ্যমিক এবং ২০৪১ সালে উন্নত বিশটি দেশের একটি হবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সঠিক পথে এগোচ্ছে। আমাদের বিদেশি ঋণের পরিমাণ জিডিপির মাত্র ৩৪ শতাংশ। সবই সফট লোন। তাই বাংলাদেশকে শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তানের সাথে তুলনা করার কোনো সুযোগ নেই।

করোনার কারণে গেল দুই বছর রেমিটেন্স অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়নি। এ বছর ২০১৯ ও ২০ সালের রেমিটেন্স একসাথে প্রদান করা হয়। ৬৭ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হয় এই অ্যাওয়ার্ড।

আরও পড়ুন: সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ বন্ধের নির্দেশ

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply