হ্যান্ডকাফসহ পালিয়েছে পুলিশের ওপর মলমূত্র ছোঁড়া সেই চোর!

|

নেত্রকোণা প্রতিনিধি

এক সপ্তাহ আগে পুলিশ তাকে ধরতে গেলে তাদের ওপর মলমূত্র ভরা ব্যাগ ছুঁড়ে মেরেছিলো এলাকার কুখ্যাত চোর মেহেদী হাসান ওরফে আলম চোর। পুলিশ সদস্যদের কাপড়চোপড় নষ্ট হলেও তবে শেষ পর্যন্ত তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন তারা।

এরপর তাকে নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। আজ বুধবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে হাসপাতাল থেকে হ্যান্ডকাফ পরিহিত অবস্থায় পালিয়েছে মেহেদী। এ ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে দুই কারারক্ষীকে তাৎক্ষণিকভাবে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

জেলা জেল সুপার মো. আব্দুল কদ্দুছ জানান, শহরের সাতপাই রেলক্রসিং এলাকার বাদল মিয়ার পুত্র মেহেদী হাসান গত ৩ মে মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়। আদালতের নির্দেশে ৪ মে তাকে জেলখানায় পাঠানো হয়।

বুধবার সকালে আলম অসুস্থ বোধ করলে ১০টার দিকে তাকে চিকিৎসার জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। দুপুর পৌনে ১টার দিকে সে হ্যান্ডকাপসহ হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়।

বিষয়টি তাৎক্ষণিক উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে জানিয়ে আব্দুল কুদ্দুছ বলেন, দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে কারারক্ষি সাইফুল ইসলাম ও জয়নাল আবেদিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পলাতক আলমকে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশের সাহায্য চাওয়া হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আলম দীর্ঘদিন ধরে শহরের বিভিন্ন বাসা-বড়িতে চুরি, মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসায় জড়িত। জেলার বিভিন্ন থানায় তার নামে রয়েছে দেড় ডজন মামলা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply