স্বামী হত্যার বিচার চাইলেন সংসদ সদস্য শিউলী আজাদ

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা এ. কে. এম. ইকবাল আজাদ হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়েছেন তার স্ত্রী ও জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম ওরফে শিউলি আজাদ।

বুধবার (১১ মে) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের একটি কনভেনশন হলে আয়োজিত প্রীতি সমাবেশে নিজের বক্তব্যে স্বামী হত্যার বিচার চান তিনি। সাংসদ শিউলী আজাদকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের আজীবন সদস্য পদ প্রদান উপলক্ষে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি এ. কে. এম. ইকবাল আজাদ ২০১২ সালের ২১ অক্টোবর দলীয় কোন্দলের জেরে খুন হন। এই ঘটনায় নিহতের ভাই এ. কে. এম. জাহাঙ্গীর আজাদ উপজেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সভাপতি আব্দুল হালিম ও সাধারণ সম্পাদক রফিক উদ্দিন ঠাকুরসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি এখনও বিচারাধীন আছে। আসামিদের মধ্যে একজন মারা গেছেন। আর বাকি ২৮ জন জামিনে আছেন।

সাংসদ শিউলী আজাদ বলেন, আমার স্বামী হত্যাকাণ্ডের সময় সাংবাদিকরা তাদের লেখনীতে প্রকৃত সত্য তুলে ধরেছিলেন। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। আমার এতিম দুই সন্তানের দিকে তাকিয়ে আমাকে সহযোগিতা করুন। আমি আশা করি আপনারা আমার পাশে থাকবেন।

জেডআই/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply