গ্রীণ বার্ড মাল্টিপারপাসের মালিক আটক, ৩০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

|

‘টাকা জমা দিতে আসছিলাম, হুট করে শুনি বন্ধ হয়ে যাইতেছে’; বলছিলেন রাজধানীর খিলগাঁওয়ের তালতলা মার্কেটের গ্রীণ বার্ড মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির এক গ্রাহক। আরেক গ্রাহক বলছিলেন, ‘খেয়ে না খেয়ে টাকাটা সঞ্চয় করেছি, আজকে যদি এ রকম হয়ে যায়, তাহলে আমাদের অবস্থা কী হবে?’

প্রায় ৫ হাজার গ্রাহকের কোটি কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিলেন গ্রীণ বার্ড মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির মালিক আলাউদ্দিন; এমন খবর পেয়ে গতকাল মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে তার অফিস ঘেরাও করে কয়েক হাজার মানুষ। পরে রাতে রামপুরা থানা পুলিশ মালিক আলাউদ্দিনকে আটক করে। উভয়পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে গ্রাহকদের টাকা ফিরিয়ে দেয়ার বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সামান্য লাভের আশায় গত ২০ বছর ধরে গ্রীণ বার্ড মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটিতে টাকা জমা দিয়ে আসছে খিলগাঁও এলাকার নিম্ন-মধ্যবিত্ত মানুষ। এরইমধ্যে কেউ জমা করেছেন ৫ লাখ টাকা, কেউ আবার ১০ লাখ টাকা। কষ্টে অর্জিত আর তিল তিল করে জমানো টাকার ভবিষ্যৎ কী, তা জানা নেই কারো। তাই গতকাল আলাউদ্দিনের অফিসের সামনে অসংখ্য গ্রাহককে কান্নাজড়িত কন্ঠে তাদের আহাজারি প্রকাশ করতে দেখা যায়।

জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানটির গ্রাহক সংখ্যা এখন প্রায় ৫ হাজার। যাদের অন্তত ৩০ কোটি টাকা নিয়ে মালিক আলাউদ্দিন পালিয়ে যাওয়ার পাঁয়তারা করছিল। মানুষের এতো টাকা কোথায়, এর কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি মাল্টিপারপাসের মালিক আলাউদ্দিন।

এদিন সময় যত গড়াতে থাকে, পরিস্থিত তত ঘোলাটে হয়। পরে রাতে রামপুরা থানা পুলিশ মাল্টিপারপাসের মালিক আলাউদ্দিনকে হেফাজতে নেয়।

ডিএমপির খিলগাঁও জোনের এডিসি নূরুল আমিন জানান, প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষকে ঠকিয়ে টাকা আত্মসাৎ করে আসছে। এখন উভয়পক্ষের সাথে আলোচনা করে গ্রাহকের অর্থ ফেরত দেয়ার বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া হবে। এমন প্রতারণা থেকে রক্ষা পেতে মানুষকে আরো সচেতন হওয়ার পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply