কুমিল্লায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাথে সংঘর্ষের ঘটনায় এলডিপি মহাসচিব গ্রেফতার

|

গ্রেফতার হয়েছেন এলডিপি মহাসচিব ডক্টর রেদোয়ান আহমেদ। কুমিল্লার চান্দিনায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও এলডিপির পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ঘিরে গুলিবর্ষণের ঘটনায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, নিজের পিস্তল দিয়েই গুলি ছোঁড়েন রেদোয়ান। এতে দু’জন গুলিবিদ্ধ হন। তাদেরকে কুমিল্লা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

কুমিল্লার চান্দিনায় একই জায়গায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও এলডিপির ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান ঘিরে সোমবার সকাল থেকেই উত্তেজনা চলছিলো। দুপুরে সংঘর্ষে জড়ায় দু’পক্ষের নেতাকর্মীরা।

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরা জানায়, রেদওয়ান আহমেদ ডিগ্রি কলেজ অডিটোরিয়ামে, তাদের অনুষ্ঠান শুরু হয় সকাল দশটার দিকে। এলডিপি’র অনুষ্ঠান বিকেলে থাকলেও তাদের নেতাকর্মীরা জড়ো হয় অনেক আগেই। এসময় দেখা দেয় উত্তেজনা। একপর্যায়ে ড. রেদোয়ানের কালো রংয়ের গাড়ি থেকে দুই রাউন্ড গুলি চালানোর অভিযোগ করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরা। এতে গুলিবিদ্ধ হয় ২ জন।

ঘটনার পরপরই চান্দিনা থানায় ঢুকে পড়েন এলডিপি মহাসচিব রেদওয়ান আহমেদ। কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর আহমেদ জানান, সাবেক সংসদ সদস্য রেদওয়ান নিজেই পিস্তুল দিয়ে গুলি চালান। দু’জন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা রুজু হয়েছে। তাকে গ্রেফতার করেছি আমরা।

গুলিবিদ্ধ দু’জনকে কুমিল্লা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন থাকলেও উত্তেজনা বিরাজ করছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply