ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মায়ের ইঞ্জেকশন পুশ করা হলো নবজাতককে

|

ফাইল ছবি

স্টাফ করেসপনডেন্ট, ব্রাহ্মণবাড়িয়া:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের আদি ডাচ্-বাংলা ডায়াগনস্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে ভুল ইঞ্জেকশন পুশের ফলে মৃত্যু শয্যায় রয়েছে এক নবজাতক। এই ঘটনায় রোববার (৮ মে) বিকেলে ওই নবজাতকের বাবা হাসপাতালের বিরুদ্ধে জেলা সিভিল সার্জন ও সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এর আগে, শনিবার (৭ মে) সন্ধ্যায় জেলা শহরের জেলরোডস্থ এ বেসরকারি হাসপাতালে নবজাতককে মায়ের ইঞ্জেকশন পুশের ঘটনাটি ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (৬ মে) রাতে জেলা শহরের আদি ডাচ-বাংলা ডায়াগনস্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার চাপুইর গ্রামের সুজন আকবরের স্ত্রী সাদিয়া আক্তার।

এরপরের দিন শনিবার (৭ মে) সন্ধ্যায় সিজারিয়ান করা চিকিৎসক ডালিয়া মনি প্রসূতির প্রেসক্রিপশনে (Rhophylac 300, Human Anti-D (Rh) immunoglobulin) ইঞ্জেকশন দিতে লেখেন। কিন্তু সেই হাসপাতালের এক নার্স ইঞ্জেকশনটি মাকে না দিয়ে নবজাতক শিশুটিকে পুশ করে। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই শিশুটির শারীরিক অবস্থা অবনতি হয়। পরে তাকে শহরের আরেকটি হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে নবজাতক শিশুটি আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছে বলে জানা গেছে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে নবজাতকের বাবার সাথে উল্টো দুর্ব্যবহার করেন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোহেল মিয়া।

এ ব্যাপারে আদি ডাচ্-বাংলা ডায়াগনস্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোহেল মিয়া জানান, ঘটনার পর পর হাসপাতালে পুলিশ ও শিশুর পরিবারের লোকজন আসেন। শিশুটিকে অন্য হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এই ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত নার্সের মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে। আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

নবজাতকের পিতা সুজন আকবর কে বলেন, চিকিৎসা ক্ষেত্রে সঠিক হাসপাতাল বাছাই করা খুব জরুরি। হাসপাতাল বাছাইয়ে আমার ভুল হয়েছে। আমার নবজাতক মৃত্যু শয্যায় আছে। ঘটনায় থানায় ও সিভিল সার্জন অফিসে অভিযোগ দাখিল করেছি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহরাব আল হোসাইন জানান, আদি ডাচ্–বাংলা হাসপাতালের চিকিৎসা সংক্রান্ত একটি ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. একরামউল্লাহ জানান রোববার বিকেলেই আমরা লিখিত অভিযোগটি পেয়েছি। এই বিষয়ে সরেজমিনে তদন্ত করা হবে, পরবর্তীতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply