জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হামলার ঘটনায় আহত ব্যক্তির মৃত্যু

|

স্টাফ রিপোর্টার, নেত্রকোণা:

নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বসতঘরে ঢুকে হামলার ঘটনায় আহত আতাবুর রহমান আকন্দের (৪৫) মৃত্যু হয়েছে। টানা ১৪ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে অবশেষে শনিবার (৭ মে) ভোররাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে আতাবুর রহমান। তিনি বাঘবেড় গ্রামের তাহের উদ্দিন আকন্দের ছেলে।

গত ২৪ এপ্রিল দুপুরে উপজেলার সান্দিকোনা ইউপির বাঘবেড় গ্রামে ঘটনা ঘটে। মামলার বিবরণে জানা যায়, আপন চাচাতো ভাই, ভাইপো ও ভাইয়ের স্ত্রীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে গত ২৪ এপ্রিল দুপুর দেড়টার দিকে নিহতের বসতঘরে প্রবেশ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়। এ সময় নিহতের ভাতিজা ইমরান আকন্দও (১৫) গুরুতর আহত হয়। পরে আহতদের উদ্ধার করে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্ররণ করেন।

নিহত আতাবুরের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার তার মৃত্যু হয়।

ঘটনার পরদিন নিহতের বড় ভাই লুৎফর রহমান আকন্দ বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় প্রধান আসামি করা হয় নিহতের আপন চাচাতো ভাই সাহাবুদ্দিন আকন্দকে (৭২)।

এই মামলার অন্য আসামিরা হলো সাহাবুদ্দিন আকন্দ ছেলে সাইদুল হাসান ওরফে ইমন আকন্দ (৩৩), এনামুল আকন্দ (২২), মৃত সামছুদ্দিনের ছেলে সাইফুল আকন্দ (৫৫) ও প্রধান আসামীর স্ত্রী হাবিবা আক্তার (৬০)। এই অজ্ঞাত রাখা হয়েছে আরও ৪-৫ জনকে।

এ ব্যপারে কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহনেওয়াজ জানান, নিহতের বড় ভাই একটি মামলা দায়ের করেছিলেন। আসামিরা জামিনে মুক্ত রয়েছেন। ওই মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হবে বলে জানান তিনি।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply