মসজিদে টিকটক করা নিয়ে দুই গ্রুপের হাতাহাতি, ৩৫ টিকটকারকে মুচলেকায় মুক্তি

|

মসজিদ কমপ্লেক্সে টিকটক করায় ৩৫ টিকটকারকে আটকের পর মুচলেকায় ছেড়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

স্টাফ করেসপনডেন্ট, ব্রাহ্মণবাড়িয়া:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে মডেল মসজিদ কমপ্লেক্সে টিকটক করায় ৩৫ জন তরুণ-তরুণীকে আটকের পর মুচলেকায় ছেড়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার (৬ মে) জুমার নামাজের পর স্থানীয় ইব্রাহিমপুর গ্রামে সরকার বাড়ির দুই পক্ষের তরুণদের মধ্যে হাতাহাতি ঘটনা ঘটে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়।  

শুক্রবার বিকেলে উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোশাররফ হোসেন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

আরও পড়ুন: মসজিদের সামনে টিকটক করাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দু’পক্ষের হাতাহাতি

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, মুসল্লিদের অভিযোগ ছিল মডেল মসজিদ এলাকায় কিছু বখাটে টিকটিক করার নামে অশ্লীল আচরণ করছিল। এ নিয়ে শুক্রবার দুপুরে দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। অভিযোগ পেয়ে বিকেলে নবীনগর উপজেলার ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নে অবস্থিত মডেল মসজিদ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে উপজেলা প্রশাসন। এ সময় মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে ৩৫ জন তরুণ-তরুণীকে আটক করা হয়। তারা মসজিদ কমপ্লেক্সে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি ও টিকটকে ভিডিও ধারণ করছিলেন। এ সময় তাদের আটক করলে তারা নিজেদের অপরাধ স্বীকার করেন এবং কখনো এ ধরনের আচরণ করবেন না মর্মে অঙ্গীকার করেন। পরে স্থানীয় মুরুব্বি ও তাদের পরিবারের সদস্যদের জিম্মায় মুচলেকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে নবীনগর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোশাররফ হোসেন বলেন, মসজিদ পবিত্র জায়গা। টিকটকের নামে এ জায়গার পবিত্রতা নষ্ট করছিলেন কিছু তরুণ-তরুণী। প্রাথমিকভাবে ৩৫ জনকে মুচলেকা নিয়ে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply