ঈদে ঘুরতে বের হয়েছিলেন কলেজছাত্র সাগর, রেললাইনের পাশে পাওয়া গেলো লাশ

|

রাজশাহী ব্যুরো:

ঈদের দ্বিতীয় দিন বাড়ি থেকে ঘুরতে বের হন একাদশ শ্রেণির ছাত্র সাগর। রাতে বাড়ি না ফেরায় পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশে অভিযোগ করা হয়। শুক্রবার (৬ মে) সকালে ওই নিখোঁজ কলেজ ছাত্রের মরদেহ রাজশাহীর পুঠিয়ায় বেলপুকুর এলাকার রেললাইনের পাশ থেকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা, হত্যার পর লাশ সেখানে ফেলে রাখা হয়েছে।

সাগরের পুরো নাম হাসিবুর রহমান। তিনি উপজেলার বেলপুকুর থানার বেলপুকুর গ্রামের সাহাদ আলীর ছেলে ও বেলপুকুর আইডিয়াল ডিগ্রি কলেজের ছাত্র।

নিহতের পিতা জানান, সাগর ঈদের দ্বিতীয় দিন, বুধবার নাটোরের লালপুরের গ্রিনভ্যালি পার্কে বেড়াতে যান। সেখান থেকে বাড়িতে আসলেও এরপর বের হয়ে আর সে আর বাড়ি ফেরেনি। ওই রাতে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান না পেয়ে বেলপুকুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। শুক্রবার ভোরে নিখোঁজ সাগরের মা ও খালা ছেলের খোঁজে বের হন। এক পর্যায়ে বেলপকুর রেলগেটের কাছে রেললাইনের পাশে লাশ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার শুরু করেন তারা। তাদের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে বেলপুকুর থানা পুলিশকে খবর দেয়।

বেলপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে বেলপুকুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের আলামত সংগ্রহের জন্য সিআইডিকে খবর দেয়। রাজশাহীর সিআইডি টিম লাশের আলামত সংগ্রহ করে। ঘটনাস্থলটি রেলওয়ের জিআরপি থানার অধীনে হওয়ায় জিআরপি থানা পুলিশকেও খবর দেয়া হয়েছে।

লাশের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে দুদিন আগে মেরে এখানে ফেলে রাখা হয়েছে বলে অনুমান করছেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply