রাজধানীতে গার্মেন্ট কর্মীকে হত্যা

|

যাত্রাবাড়ির মাতুয়াইল এলাকায় নাসরিন আক্তার মুশকান নামের এক গার্মেন্ট কর্মী হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। হত্যাকারী যুবক জাহাঙ্গীরকে আটক করেছে পুলিশ। তারা পরকীয়ায় লিপ্ত ছিল বলে ধারণা পুলিশের।

প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছে জানা যায়, জাহাঙ্গীর ও মুশকানকে ফ্ল্যাটে রেখে বাইরে থেকে তালা দিয়ে একান্তে সময় কাটানোর সুযোগ করে দেয় ভাড়াটিয়া মামুন। পরে জাহাঙ্গীরের চিৎকার চেচামেতিতে লোক জড়ো হয়ে দরজা তালাবদ্ধ দেখে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। দরজা ভেঙ্গে নাসরিন আক্তারের রক্তাক্ত মরদেহ পাওয়া যায়।

পুলিশের ধারণা, পরকীয়ার সম্পর্ক থেকেই ঘটনার সূত্রপাত। কোনো এক পর্যায়ে মুশকান জাহাঙ্গীরের পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়। পরে দেয়ালে মুশকানের মাথা বাড়ি দেয় জাহাঙ্গীর।।

মুশকানের সুরতহালে কপালে ও বাম চোখে থেতলে যাওয়ার আলামত পাওয়া গেছে। এছাড়া শরীরের আর কোথাও আঘাতের চিহ্ন নেই। পুলিশের ধারণা মাথায় আঘাত ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। জাহাঙ্গীর আটক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply