গোপালগঞ্জে ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১৫

|

স্টাফ রিপোর্টার, গোপালগঞ্জ:

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ইভটিজিং করাকে কেন্দ্র করে দুইদল গ্রামবাসীর মধ্যে গভীর রাত পর্যন্ত ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মহড়ার মত ঘটনা ঘটেছে। এতে সংবাদ কর্মীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে।

বুধবার (৩ মে) রাতে টুঙ্গিপাড়ার মধুমতি নদীর পাটগাতি বাজার সংলগ্ন ঘাট এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, বুধবার সন্ধ্যায় পাটগাতি গ্রামের লিটু শেখের স্ত্রী ও মেয়েরা মধুমতি নদীর পাটগাতি বাজার সংলগ্ন ঘাট এলাকায় গেলে শ্রীরামকান্দির কয়েকটি ছেলে তাদেরকে ইভটিজিং করে। এ বিষয় নিয়ে পরবর্তী কালে শ্রীরামকান্দি ও পাটগাতীর মানুষেরা দুই পাশে জমায়েত হয় ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। কয়েক ঘণ্টা ধরে এ পরিস্থিতি চলার পর জেলা সদর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে ৪২ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় পার্ক করে রাখা ৪/৫টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয় ও হামলা করা হয় বেশ কয়েকটি দোকান ঘরে।

টুঙ্গিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি একেএম সুলতান মাহমুদ জানিয়েছেন, আহতদের মধ্যে ২ জনকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে, ২ জনকে টুঙ্গিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এলাকায় ধমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি বলেও জানান ওসি।

এটিএম/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply