বন্ধ করতে না করতেই আবার সড়ক খুঁড়তে চায় খুলনা ওয়াসা

|

একটি মেগা প্রকল্পের ভোগান্তির রেশ কাটতে না কাটতেই আরও আরেকটি মেগা প্রকল্পের কাজ শুরু করেছে খুলনা ওয়াসা। আগামী মাসে শহরের ১৩৫ কিলোমিটার সড়ক খোঁড়ার মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হবে ২ হাজার ৩৩৪ কোটি টাকার ওই প্রকল্পের কাজ। পানি সরবরাহ প্রকল্পের জন্য খোঁড়া সড়ক সংস্কারের কাজ শেষ হতে না হতেই আবারও রাস্তা খোঁড়ার খবরে ক্ষুব্ধ শহরবাসী।

শহরের মানুষের বাড়িতে বাড়িতে পানি পৌঁছে দিতে আড়াই হাজার কোটি টাকারও বেশি ব্যয়ে পানি সরবরাহ প্রকল্প নামে মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে খুলনা ওয়াসা। নগরীর সাড়ে সাতশ কিলোমিটার সড়ক খুঁড়েছিল তারা। একই রাস্তা বারবার খোঁড়া আর দীর্ঘদিন সংস্কার না করে ফেলে রাখায় ভোগান্তি পোহাতে হয় নগরবাসীকে।

খুলনা সুয়ারেজ পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক খান সেলিম আহমেদ জানালেন, পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়নে নতুন প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ে তারা ৩০ হাজার বাড়িতে ২৭৯ কিলোমিটার সুয়ারেজের পাইপ বসাবে। এছাড়া শহরের বিভিন্ন স্থানে আটটি পাম্প স্টেশনের পাশাপাশি মাথাভাঙ্গা ও টিকরাবন্দে ৮০ লাখ মিলিলিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন দুটি শোধণাগার নির্মাণ করা হবে।

এদিকে পানি সরবরাহ প্রকল্পের সড়ক খুঁড়ে রাখার সেই দুঃসহ স্মৃতির রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও রাস্তা খোঁড়াখুড়ির খবরে ক্ষুব্ধ শহরবাসী।

খুলনা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুল্লাহ জানিয়েছেন, পানি সরবরাহ প্রকল্প শেষে সড়ক সংস্কারের কাজে তারা কেসিসি, সড়ক ও জনপথ, কেডিএ এবং এলজিইডিকে ১৭২ কোটি টাকা দিতে চান।

এর আগে পানি সরবরাহ প্রকল্পের জন্য সড়ক খোঁড়া ও সংস্কার বাবদ কেসিসি সড়ক বিভাগ ও এলজিইডিকে ১৩৮ কোটি টাকা দিয়েছিল খুলনা ওয়াসা।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply