মুখ দেখে কি মানুষ চেনা যায়? যা বলছে গবেষণা

|

প্রতীকী ছবি

রূপ আর গুণের মধ্যে কোনও সম্পর্ক আছে কি না, বিতর্কের শেষ নেই এ নিয়ে। সেই বিতর্কে এবার ঘি ঢালতে পারে অস্ট্রেলিয়ার একটি গবেষণা। অস্ট্রেলিয়ার ‘নিউ সাউথ ওয়েলস’ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, চৌকো মুখের মানুষদের নাকি বেশি আগ্রাসী ভাবা হয় বৃত্তাকার মুখের মানুষদের তুলনায়।

‘রয়াল সোসাইটি ওপেন সায়েন্স’ নামক বিজ্ঞান পত্রিকায় প্রকাশিত এই গবেষণাপত্রের জন্য, তিন থেকে ৯৭ বছর বয়সি মোট ১৭৬০৭ জনের মুখের দৈর্ঘ্য-প্রস্থের মাপ নিয়েছেন গবেষকরা। সেই মাপ থেকে একটি বিশেষ অনুপাতের তুলনামূলক বিশ্লেষণ করেছে তারা। এই অনুপাত যত বেশি, ততই চৌকো সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির মুখ।

পুরো গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ২৭ থেকে ৪০ বছরের মানুষের ক্ষেত্রে পুরুষদের মুখ নারীদের তুলনায় বেশি গোলাকার থাকে। কিন্তু চল্লিশের পর উল্টে যায় ছবিটি। চল্লিশের পর নারীদের মুখ বেশি চৌকো হয়ে যায়।

পরবর্তী ধাপে গবেষণায় অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের একাংশকে জিজ্ঞাসা করা হয়, কোন ধরনের মানুষের মুখ দেখে বেশি আগ্রাসী মনে হচ্ছে? অধিকাংশ মানুষই জানান চৌকো মুখের মানুষদের বেশি আগ্রাসী মনে হয়েছে তাদের। তবে ঠিক কেন এমন হয়, তা নিয়ে অবশ্য নিশ্চিত নন গবেষকরা। তাদের প্রাথমিক ধারণা, প্রথাগত ভাবে যেহেতু যুবকদের সঙ্গে পৌরুষ ও আগ্রাসনের ধারণা মিশিয়ে দেয়া হয়, সে কারণেই হয়তো ঘটে এমনটা। কিন্তু বাস্তবে বিষয়টি আদৌ সত্যি কি না, তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। পুরোটাই সামনের মানুষটির কল্পনা।

এনবি/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply