এবার থেকে টুইটার ব্যবহারের জন্য গুনতে হবে অর্থ, ঘোষণা ইলন মাস্কের

|

ইলন মাস্ক। ছবি: সংগৃহীত।

টুইটারের একক মালিকানা পাওয়ার পর থেকেই এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে বিভিন্ন পরিবর্তন আসতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছিল। সেই ধারণাকে সত্যি করে ইলন মাস্ক ঘোষণা দিয়েছেন, আর বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে না টুইটার। অবশ্য সবার ক্ষেত্রেই এই ‘অর্থের বিনিময়ে টুইটার’ পন্থা বাস্তবায়ন করা হবে না। বিষয়টি নিজেই নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে প্রকাশ করেছেন ইলন। খবর রয়টার্সের।

বুধবার (৪ মে) ইলন মাস্কের ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি টুইট করা হয়। সেখানে ইলন লেখেন, সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে টুইটার ব্যবহার করতে পাবেন। তবে সরকার বা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে সামান্য কিছু অর্থ পরিশোধ করতে হতে পারে।

যেদিন থেকে ইলন মাস্কের টুইটার ক্রয়ের পরিকল্পনা সামনে আসে, সেদিন থেকেই এই প্ল্যাটফর্মের সম্ভাব্য পরিবর্তন নিয়ে বিভিন্ন জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। এমনকি কার্যপ্রণালীতে বদল আনতে টুইটারের সিইও পরাগ অগরওয়াল এবং আইনি প্রধান বিজয়া গাড্ডেকে পদ থেকে সরাতে পারেন বলেও গুঞ্জন উঠেছে।

টুইটার ব্যবহারের আগে থেকেই ইলন এই মাইক্রোব্লগিং সাইটের কার্যপ্রণালী নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছেন। এমনকি, টুইটারে মানুষের বাক্‌স্বাধীনতা যথেষ্ট গুরুত্ব পাচ্ছে না বলেও তিনি দাবি করেন। কারণ হিসেবে টুইটারের একাধিক মালিকানা থাকাকেই দায়ী করেছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, সোমবার (২৫ মার্চ) রাতে টুইটার কিনে নেন ইলন। ৪,৪০০ কোটি ডলার এর বিনিময়ে এই মাইক্রোব্লগিং সাইটের মালিকানা পান তিনি।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply