দৌড়ে পালিয়েও প্রাণে বাঁচতে পারলো না রনি

|

নিহত তরুণ রনি।

স্টাফ করেসপনডেন্ট, মানিকগঞ্জ:

হামলাকারীদের হাত থেকে বাঁচতে দৌড়ে এক বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিলেন মাহমুদুর রহমান রনি (১৮)। কিন্তু সেখানে গিয়েও ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপানো হয় তাকে। গুরুতর আহত অবস্থায় ঈদের দিনই হাসপাতালে নেয়ার পথেই মৃত্যু হয় এই তরুণের। নিহত রনি স্থানীয় মানিকনগর গ্রামের নয়াব আলীর ছেলে।

ঈদের দিন বিকালে অর্থাৎ মঙ্গলবার (৩ মে) মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার নীলাম্বরপট্টি এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হন মাহমুদুর রহমান রনি। রনির স্বজন ও স্থানীয়রা জানান, ঈদের দিন বিকালে মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে বের হয়েছিলেন রনি। নীলাম্বরপট্টি এলাকায় পৌঁছলে পরিকল্পিতভাবে পেছন থেকে অপর একটি মোটরসাইকেল ধাক্কা দিয়ে তাকে প্রথমে ফেলে দেয়া হয়। এরপর স্থানীয় ইউপি সদস্যের ছেলে সালমান ও তার সহযোগীরা রনিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে। প্রাণে বাঁচতে রনি এক বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিলেও সেখানেও হামলা চালানো হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয় তার।

নিহত রনির চাচাতো ভাই মুরাদ জানান, উপজেলার মানিকনগর ও শাহরাইল গ্রামের যুবক এবং কিশোরদের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরেই স্থানীয় ইউপি সদস্যের ছেলে সালমান ও তার সহযোগীরা পরিকল্পিতভাবে রনিকে কুপিয়ে হত্যা করে।

স্থানীয়রা দুটি মোটরসাইকেল আটক করতে পারলেও হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় রনির বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্ততি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি।

সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম মোল্ল্যা ঘটনাস্থল থেকে জানান, ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রনিকে হত্যা করা হয়েছে। জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply