শরণার্থী শিবির থেকে বাংলাদেশ; লাল-সবুজের দেশে ওমিদ ও তার স্ত্রীর ঈদ

|

বাংলাদেশে ওমিদ ও হাসিনার ঈদ।

আফগানিস্তানে জন্ম হলেও, এবার প্রথমবারের মতো মুসলিম দেশে ঈদ পালন করছেন ফুটবলার ওমিদ পাপুলজাই ও তার স্ত্রী হাসিনা। বাংলাদেশে এসে লাল-সবুজের প্রেমে পড়েছেন এই প্রফেশনাল ফুটবলার।

ওমিদ পাপুলজাই ও তার স্ত্রী হাসিনা, দু’জনেরই জন্ম আফগানিস্তানে। কিন্তু দেশটির সংঘাতময় অবস্থায় প্রায় দুই দশক আগে তাদের পাড়ি জমাতে হয় নেদারল্যান্ডসে। অমুসলিম দেশ হওয়ায় সেখানে সেভাবে ঈদের আমেজ পাননি তারা। তাই প্রথমবার মুসলিম দেশে ঈদ পালন করে বেশ আনন্দিত এই আফগানিস্তান জুটি। চট্টগ্রাম আবাহনীর ফুটবলার ওমিদ পাপুলজাই বলেন, এই প্রথম আমি মুসলিম দেশে ঈদ পালন করেছি। খুবই ভালো লাগছে। এরকম ঈদের আবহ এর আগে আমি কখনো পাইনি। এখানে সবাই পরিবারের মতো।

ওমিদ পপুলজাইয়ের স্ত্রী হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ মুসলিম দেশ। এখানকার মানুষের কালচারে আমি মুগ্ধ। খুব ভালো সময় কাটছে।

সময় পেলেই এই দম্পতি বের হয়ে পড়েন ঘুরতে আর পছন্দের খাবার খেতে। সেই সাথে গরিব দুখীদের সাথেও ভাগাভাগি করে নেন ঈদের আনন্দ। জানান, ওমিদের প্রিয় কাচ্চি বিরিয়ানি আর হাসিনার পছন্দ গুলাব জামুন।

তবে, হাসিমাখা এই মুখগুলোর পেছনে লুকিয়ে আছে অন্ধকার অতীত। ৪ বছর বয়সে দেশ ছেড়েছেন ওমিদ, কাটিয়েছেন রিফিউজি জীবন। রক্তপাত ছিল সেখানে নিত্যনৈমেত্তিক বিষয়। মাঝে মাঝে নিজেদের পশু মনে হতো, বলেছেন এই আফগান ফুটবলার। ওমিদ পাপুলজাই বলেন, আমরা ১০ বছর রিফিউজি ক্যাম্পে ছিলাম। ছোট্ট একরুমে ৩-৪ জন করে থাকতে হতো। মাঝে মাঝে মনে হতো আমরা পশুর জীবন যাপন করছি। চোখের সামনে অনেক রক্তপাত দেখেছি। সেসব এখনো মনে হলে ভয় ধরে যায়।

তবে সেসব দিন পেরিয়ে এসেছেন তারা। বাংলাদেশের প্রেমে পড়া এই আফগান জুটি ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশের মানুষদের।

আরও পড়ুন: কলাবাগানের আলোচিত সেই তেঁতুলতলা মাঠে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply