ঝড়বৃষ্টি উপক্ষা করে সারাদেশে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

|

করোনায় দুই বছর পর ঈদগাহে ও খোলা জায়গায় ঈদের জামাত আদায় করেছেন মুসল্লিরা। সকাল ৭টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদুল ফিতরের প্রথম জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়। এখানে পাঁচ বার ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৮টা দ্বিতীয়, ৯টা তৃতীয় ও ১০টায় চতুর্থ জামাত। ১০টা ৪৫ মিনিটে পঞ্চম জামাতের মাধ্যমে শেষ হবে বায়তুল মোকাররমের এবার ঈদের নামাজ। ঝড়বৃষ্টি উপেক্ষা করে জামায়াতে অংশ নিতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে যোগ দিচ্ছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

এদিকে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে সকালে সাড়ে আটটায় শেষ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঈদগাহে মানুষের উপচে পড়া ভিড়। ঢাকাসহ আশপাশের এলাকা থেকে হাজার হাজার মুসল্লি অংশ নেন। উন্মুক্ত জায়গায় নামাজ আদায় করে খুশি মুসল্লিরা। সবার দেশের করোনা মুক্ত ও সকলের মঙ্গল কামনা করেন।

এশিয়ার সবচেয়ে বড় ঈদগাহ দিনাজপুরের গোর এ শহীদ ময়দানে একসাথে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন লাখো মুসল্লি। ৫২ গম্বুজের পুরো ঈদগাহ ময়দানের আয়তন ২২ একর। সকাল ৯ টায় শুরু হয় জামাত। ভোর ৫ টা থেকে মুসল্লিরা আসতে শুরু করেন। এতোবড় জামাতে একসাথে নামাজ আদায় করতে পারার আনন্দ ছিল সবার চোখে-মুখে। মুসল্লিদের নিরাপত্তায় ৬শ অস্ত্রধারী পুলিশ সদস্য মোতায়েন ছিল পুরো ময়দানজুড়ে।

বৈরি আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে কিশোরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে ঈদের জামাতে অংশ নিয়েছেন মুসল্লিরা। খোলা আকাশের নিচে বৃষ্টিতে ভিজেই নামাজে আদায় করেন অনেকে। এদিকে ঈদ জামাতকে নিরাপদ ও শান্তিপূর্ণ রাখতে পুরো শহরকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয় সব ধরনের যানবাহন চলাচল। শোলাকিয়া মাঠ ও আশপাশের এলাকায় কার্যকর করা হয়েছে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply