নদী ভাঙনে তলিয়েছে ভিটেমাটি, পলিথিনের বাড়িতেই ঈদ আনন্দ ৪০টি পরিবারের

|

যমুনা নদীর ভাঙনে ভিটেমাটি হারানো চল্লিশটি পরিবারের বাস ময়মনসিংহ শহরের পাশে ব্রহ্মপুত্রের চরে। সেখানে তাবু খাটিয়ে বৈরি আবহাওয়ার সাথে যুদ্ধ করে দিন কাটে তাদের। তিনবেলা ঠিকমতো খাবার যোগাড় করাই যাদের জন্য চ্যালেঞ্জ, ঈদের আনন্দ সেখানে ম্লান।

শিশু হোসেন আলী খুব খুশি। ময়লার ভাগাড়ে খুঁজে পেয়েছে একজোড়া জুতা। পুরনো জুতায়, ঈদের আনন্দে আত্বহারা সে। যমুনা নদীর ভাঙ্গনে হোসেন আলীরসহ ভিটেমাটি হারানো প্রায় ৪০টি পরিবার দির্ঘদিন ধরে আশ্রয় নিয়ে আছে ময়মনসিংহ শহরের পাশে ব্রহ্মপুত্র নদের চরে। বাঁশ-পলিথিন দিয়ে বানানো ঘরে লেগেছে ঈদ আনন্দের ছোয়া।

তবে বৈরি আবহাওয়া ও ঝড়ো হাওয়ার মাঝে পলিথিনের ঘর টেকানো মুশকিল। জীবন যুদ্ধে প্রতিদিনই অবিরাম লড়াই করতে হয় এখানকার মানুষদের। তারপরও বলছেন সুখেই আছেন। পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদ আনন্দে ভাসতে চায় সকলেই। সেই আনন্দ হাজার টাকার শপিং করে নয়, এখানে আসে মনের শান্তিতে।

গরিব কিংবা ধনী। দিন শেষে সবার জীবনে ঈদ, আনন্দ বয়ে নিয়ে আসুক। পরবর্তী প্রজন্মকে পরোপকারী হওয়ার শিক্ষা দিক। সেই কামনা এসব হতদরিদ্র মানুষগুলোর।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply