উত্তেজনায় ঠাসা ম্যাচের রেফারিং নিয়েও বিতর্ক

|

এল ক্লাসিকো মানে ম্যাচ শেষেও তর্ক-বিতর্ক, উত্তেজনা। মৌসুমের শেষ এল ক্লাসিকো-ও এর ব্যতিক্রম নয়। উত্তেজনায় ঠাসা ম্যাচে রেফারির বেশ কিছু সিদ্দান্তই মেনে নিতে পারেননি দু’দলের কোচই। ম্যাচের প্রথমার্ধে রিয়ালের দুই খেলোয়াড়কে হলুদ কার্ড দেন রেফারি। আর এক লাল কার্ডের ১০ জনের দল হয়ে যায় বার্সা। এ নিয়ে আছে নানা কথা। আরও কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে আছে প্রশ্ন।

গ্যারেথ বেলের বেপরোয়া চ্যালেঞ্জ, ভারানকে সুয়ারেজের ফাউল, জর্ডি আলবা বাজেভাবে ফেলে দিয়েছিলেন মার্সেলোকে—এসবই এড়িয়ে গেছেন রেফারি হোসে হার্নান্দেজ। সঠিক সিদ্ধান্ত নিলে ম্যাচের ফলাফল অন্য রকম হতে পারত হয়তো।

এসবের জন্যেই ভবিষ্যতে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির (ভিএআর) ওপর ভরসা রাখতে চান জিদান, আগামী মৌসুমে ভিএআরের সংযুক্তি এসব পাল্টে দেবে। তারপরই দেখা যাবে, এ রকম ম্যাচের ফলাফল কোথায় গিয়ে ঠেকে।

অন্যদিকে, রেফারির জন্য এটি কঠিন ম্যাচ ছিল উল্লেখ করে বলেন বার্সেলোনা কোচ ভালভার্দে বলেন, সার্জিও রবার্তোর লাল কার্ডের বিষয়ে আমি কিছু বুঝতে পারছি না। সে হয়তো তার হাত ওপরে তুলেছিল। লাল কার্ড দেখানোর মতো কিছু মোটেও হয়নি। অন্তত রবার্তোকে আমি যতটুকু চিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও দিনভর দু’দলের সমথর্করা বাজে রেফারিং নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। অবশ্য, এক্ষেত্রে সমর্থকরা নিজেদের পছন্দের দলকে ক্ষতিগ্রস্ত মনে করছেন।

যমুনা অনলাইন: এটি









Leave a reply