যে ৫ খাবার প্রেশার কুকারে রান্না করলে নষ্ট হয় স্বাদ ও পুষ্টিগুণ

|

দ্রুত রান্না করার অন্যতম একটি মাধ্যম হল প্রেশার কুকার। সকালে উঠতে দেরি হয়ে গেছে? খুব জলদি কিছু খেয়ে অফিসে বের হতে হবে? তখন হাতের কাছে প্রেশার কুকারে চালে ডালে হলুদ মরিচ দিয়ে তৈরি হয়ে যায় খিচুড়ি। এমনি আরও অনেক খাবার আমরা প্রেশার কুকারে রান্না করে থাকি। কিন্তু কিছু খাবার রয়েছে যা প্রেশার কুকারে রান্নার ফলে নষ্ট হয় খাবারের স্বাদ ও পুষ্টিগুণ, যা আমরা অনেকেই জানিনা।

কোন ধরনের খাবার প্রেশার কুকারে রান্না করবেন না, চলুন দেখে নেয়া যাক।

দুগ্ধজাত খাবার: দুধ দিয়ে তৈরি কোনো ধরনের খাবার প্রেশার কুকারে রান্না না করাই শ্রেয়। প্রেশার কুকারে রান্না করলে দুধ দিয়ে বানানো খাবারের স্বাদও ঠিক থাকে না, পুষ্টিগুণও নষ্ট হয়ে যায়।

ডিম: তাড়াহুড়োয় অনেকে ডিম প্রেশার কুকারে সেদ্ধ করে থাকেন। কিন্তু এটি করা একদমই উচিত নয়। ডিম সেদ্ধ করতে গিয়ে বেশি তাপমাত্রার প্রয়োজন পড়ে। ফলে ডিম ফেটে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ডিম সেদ্ধ হয়েছে কি হয়নি তা জানতে প্রেশার কুকারের চেয়ে বড় পাত্র ব্যবহার করাই ভালো।

শাকসবজি: সবজির মধ্যে অনেক পুষ্টি উপাদান থাকে। অধিক তাপমাত্রার কারণে সবজির পুষ্টি ও খনিজগুণ নষ্ট হয়ে যায়, ফলে সবজি কড়াই অথবা বড় পাত্রে রান্না করাই ভালো।

ভাত: ভাত তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে বলে আমরা অনেকেই ভাত প্রেশার কুকারে রান্না করে থাকি। ফলে ভাতের মাড় কিন্ত ভাতের সাথেই মিশে থাকে। মাড়সহ ভাত আমাদের ওজন বাড়িয়ে দিতে পারে।

মাছ: মাছ এমনিতেই তাড়াতাড়ি রান্না হয়ে যায়। প্রেশারে মাছ রান্না করলে মাছ বেশি সেদ্ধ হয়ে নরম হয়ে যায়। ফলে মাছের স্বাদ অনেকটা নষ্ট হয়ে যায়। তাই প্রেশারে মাছ না করাই ভালো।

এটিএম/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply