আলোচিত জাবি অধ্যাপক আলী আজমকে দুই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি

|

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক আলী আজম তালুকদারকে প্রতিষ্ঠানটির শহীদ সালাম বরকত হলের প্রভোস্ট ও পরিবহন পুলের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সিন্ডিকেট সদস্য জানান, ২৮ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তবে ঠিক কোন অভিযোগে তাকে দায়িত্ব থেকে সরানো হয়েছে তা এখনই জানাননি তিনি।

ইতোপূর্বে করোনা মহামারির সময় তার বিরুদ্ধে হলে ছাগল পালনের অভিযোগ ছিল। সেসময় বিভিন্ন সংবাদপেত্র প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, তিনি হলের নিরাপত্তাপ্রহরীদের বাধ্য করতেন ছাগলের জন্য ঘাস কাটতে ও সেগুলোর দেখাশোনা করতে। এছাড়া পরিবহন অফিসের গাড়ি ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার, ড্রাইভার নিয়োগে অনিয়ম, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্বেচ্ছাচারিতা, প্রভোস্টের বাসভবনের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ না করে অর্থ উত্তোলন ও নিয়ম না মেনে গাছ কাটা ও বিক্রির অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে দুর্ব্যবহারের অভিযোগও রয়েছে। সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর ফারজানা ইসলামের ঘনিষ্ঠ হওয়ায় এত অভিযোগ মাথায় থাকা সত্ত্বেও তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হতো না বলেও মন্তব্য করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক।

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক নুরুল আলম যমুনা নিউজকে বলেন, আনুষ্ঠানিক রেজ্যুলেশন হওয়ার আগ পর্যন্ত উপাচার্যের অবস্থান থেকে কোনো মন্তব্য করতে রাজি নন তিনি। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীন জানান, ২৮ এপ্রিলের সিন্ডিকেটে তাকে ওই দুই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে ঠিক কোন অভিযোগে তাকে দুটি দায়িত্ব থেকেই সরিয়ে দেয়া হয়েছে তা নিশ্চিত করতে পারেননি তিনিও।

অভিযোগ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত শিক্ষক আলী আজম তালুকদার বলেন, সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্তের কোনো লিখিত তথ্য তিনি পাননি। এখনও তিনি প্রভোস্টের বাসভবনেই অবস্থান করছেন। তবে দুটি দায়িত্ব থেকেই অব্যাহতির বিষয়টি বিভিন্ন মাধ্যম থেকে তিনি নিজেও শুনেছেন বলে জানালেন। বললেন, লিখিতভাবে সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানতে পারলে তিনি এ নিয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত বক্তব্য প্রকাশ করবেন। এখনই এ নিয়ে এর বেশি কোনো মন্তব্য করতে চান না।

/এডব্লিউ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply